Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২
Viral video

Indigo: পাইলটের মুখে পঞ্জাবি বুলি! জরুরি পরামর্শও দিলেন যাত্রীদের, ভাইরাল মজাদার ভিডিয়ো

পাইলট নিজেও পঞ্জাবি। বিমানের মধ্যে তাঁকে প্রথমে ইংরেজিতেই কথা বলতে দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু হঠাৎ তিনি মাতৃভাষায় কথা বলতে শুরু করেন।

পঞ্জাবিতে পরামর্শ দিলেন পাইলট।

পঞ্জাবিতে পরামর্শ দিলেন পাইলট। ছবি: ভিডিও থেকে

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৫ অগস্ট ২০২২ ১৩:৩৫
Share: Save:

মাথায় পাগড়ি, পরনে বিমানচালকের ইউনিফর্ম। মাইক্রোফোন হাতে হিন্দি বা ইংরেজি নয়, পাইলট কথা বলছেন বিশুদ্ধ পঞ্জাবিতে! ইন্ডিগোর একটি বিমানে সম্প্রতি এই দৃশ্য দেখা গিয়েছে। পাইলটের এমন আচরণে মজা পেয়েছেন যাত্রীরা।

Advertisement

বেঙ্গালুরু থেকে চণ্ডীগড় যাচ্ছিল ইন্ডিগোর সেই বিমান। তার ক্যাপ্টেন নিজেও পঞ্জাবি। বিমানের মধ্যে তাঁকে প্রথমে ইংরেজিতেই যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলতে দেখা যাচ্ছিল। কিন্তু ইংরেজি বলতে বলতে হঠাৎ তিনি মাতৃভাষায় কথা বলতে শুরু করেন। পাইলটের মুখে এমন কথা শুনে হেসে ওঠেন বিমানের যাত্রীরা।

ভারতের যে কোনও বিমানে সাধারণত হিন্দি বা ইংরেজিতে কথা বলেন পাইলট। ইন্ডিগোর এই ক্যাপ্টেনের কাণ্ড তাই ভাইরাল হয়েছে নেটমাধ্যমে। দনবীর সিংহ নামের এক ব্যক্তি এই ভিডি‌য়ো টুইটারে শেয়ার করেছেন। যা দেখে উচ্ছ্বসিত নেটিজেনরাও।

কী বলছিলেন ওই পাইলট?

Advertisement

ভিডিয়োতে দেখা গিয়েছে, যাত্রীদের উদ্দেশে বিমানের ক্যাপ্টেন বলছেন, ‘‘বাঁ দিকে যাঁরা বসে আছেন, তাঁরা নিজেদের ছবি তোলার প্রতিভা কাজে লাগাতে পারবেন। আর যাঁরা ডান দিকে বসেছেন, তাঁরা দেখতে পাবেন ভোপাল। অবশ্য, এ সব শুধু যাঁরা জানলার ধারে বসেছেন তাঁদের জন্য। বাকি সিটে যাঁরা বসেছেন তাঁরা এ দিক-ও দিক মাথা ঘোরালে শুধু একে অন্যকে দেখতে পাবেন!’’

এত কিছু বলার পর যাত্রীদের উদ্দেশে ক্যাপ্টেনের প্রশ্ন, ‘‘তা হলে আমরা কী শিখলাম? সব সময় জানলার ধারেই বসা উচিত!’’

যাত্রীদের কোভিডবিধি মেনে মাস্ক পরে থাকার পরামর্শও দিয়েছেন ওই ক্যাপ্টেন। এ ছাড়া, প্রায়ই দেখা যায়, বিমান থেকে নেমে যাত্রীরা নিজেদের জিনিসপত্র হাতে পাওয়ার জন্য ব্যস্ত হয়ে পড়েন। ছোটাছুটি করেন। তাঁদের জন্যেও বার্তা দিয়েছেন ইন্ডিগোর এই পাইলট। বলেছেন, ‘‘আপনাদের জিনিসপত্র সব নিরাপদ। যত ক্ষণ না দরজা খুলছে, দয়া করে নিজের জায়গায় বসে থাকুন। জিনিসপত্র এক্কেবারে নিরাপদ রয়েছে।’’

ইংরেজি আর পঞ্জাবি মিশিয়ে যে ভাবে মজার ছলে যাত্রীদের সঙ্গে কথা বলেছেন পাইলট, তাতে মুগ্ধ নেটাগরিকরা। কেউ কেউ বলছেন, ‘‘এত বার চণ্ডীগড় গিয়েছি, কখনও এই ক্যাপ্টেনকে কেন পাইনি!’’ এক জন বলেছেন, ‘‘আমি এক বার এই পাইলটের ফ্লাইটে চড়েছিলাম। আমাদের সঙ্গেও তিনি এমন মজা করে কথা বলেছিলেন। ওঁর বিমান ওড়ানোর দক্ষতাও দুর্দান্ত। বর্ষাকালে মেঘলা আবহাওয়ার মাঝেও সুন্দর ভাবে বিমান নামিয়েছিলেন তিনি।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.