Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

Nagaland AFSPA: আফস্পা প্রত্যাহার করুন, কেন্দ্রকে চিঠি লিখছে নাগাল্যান্ড সরকার, বাতিল হর্নবিল উৎসব

সংবাদ সংস্থা
কোহিমা ০৭ ডিসেম্বর ২০২১ ১৩:১১
উত্তর-পূর্বে ক্রমেই জোরদার আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি।

উত্তর-পূর্বে ক্রমেই জোরদার আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি।
ছবি— পিটিআই।

সেনার ২১ নম্বর প্যারা স্পেশাল ফোর্সের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত গণহত্যার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছিল নাগাল্যান্ড পুলিশ। তার পর ২৪ ঘণ্টাও কাটল না। এ বার কেন্দ্রকে ‘আর্মড ফোর্সেস স্পেশাল পাওয়ার অ্যাক্ট’ (আফস্পা) প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে চিঠি দিচ্ছে বলে জানাল নাগাল্যান্ড সরকার। একই সঙ্গে রাজ্যের আদিবাসীদের প্রভাবশালী সংগঠন ‘কোনইয়াক ইউনিয়ন’ আফস্পা প্রত্যাহারের পাশাপাশি অসম রাইফেলসের জওয়ানদেরও নাগাল্যান্ডের মন জেলা থেকে সরিয়ে নেওয়ার দাবি জানিয়েছে।

উত্তর-পূর্বে ক্রমেই জোরালো হচ্ছে আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি। নাগাল্যান্ডের রাজ্য মন্ত্রিসভার জরুরি বৈঠকে কেন্দ্রকে চিঠি লিখে রাজ্য থেকে আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি জানানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সোমবার মুখ্যমন্ত্রী নেফিউ রিয়ো বলেছিলেন, ‘‘আমার রাজ্যে অশান্তির কারণ হয়ে উঠছে আফস্পা। অবিলম্বে আফস্পা প্রত্যাহার করতে হবে।’’

Advertisement

কেন্দ্রকে যে চিঠি দেওয়া হবে, তাতেও আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি জানানো হবে বলে জানিয়েছে নাগাল্যান্ডের রিয়ো সরকার। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা বলছেন, বিজেপির জোট সঙ্গী তথা এনডিএ-এর অন্যতম সদস্য রিয়ো আফস্পা নিয়ে এ কথা বললে, তার তাৎপর্য বিপুল।

এ দিকে শনিবারের ঘটনার জেরে বাতিল করে দেওয়া হয়েছে নাগাল্যান্ডের হর্নবিল উৎসব। প্রতি বছর ১০ দিনের এই অনুষ্ঠানকে নাগাল্যান্ডের প্রধান উৎসব হিসেবে চিহ্নিত করা হয়। মঙ্গলবার ছিল অনুষ্ঠানের ষষ্ঠ দিন। কিন্তু অশান্তির পরিবেশে এ বারের মতো অনুষ্ঠান মাঝপথে বাতিল করে দেওয়া হল।

নাগাল্যান্ডের প্রভাবশালী আদিবাসী সংগঠন ‘কোনইয়াক ইউনিয়ন’ও উত্তর-পূর্ব থেকে আফস্পা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে। পাশাপাশি নাগাল্যান্ডের মন জেলা থেকে অসম রাইফেলসের জওয়ানদের সরিয়ে নিয়ে যাওয়ার দাবি রেখেছে তারা। ‘কোনইয়াক ইউনিয়ন’ ঘটনার নিরপেক্ষ তদন্তেরও দাবি জানিয়েছে।

শনিবার সেনার গুলিতে ১৪ জন গ্রামবাসীর মৃত্যু হয়। স্থানীয়দের পাল্টা হামলায় এক সেনা জওয়ানেরও মৃত্যু হয়। সোমবার সংসদে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ জানান, ভুল বোঝাবুঝির কারণেই সেনা গুলি চালায়। ঘটনায় সিট গঠন করে তদন্তের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে বলে সংসদকে জানিয়েছেন অমিত। অন্য দিকে সেনার ২১ নম্বর প্যারা স্পেশাল ফোর্সের বিরুদ্ধে ইচ্ছাকৃত গণহত্যার অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছে নাগাল্যান্ড পুলিশ। সব মিলিয়ে গুলিচালনার অভিঘাতে এখনও উত্তপ্ত নাগা রাজ্য। তার আঁচ টের পাওয়া যাচ্ছে কয়েক হাজার কিলোমিটার দূরের রাজধানী দিল্লিতেও।

আরও পড়ুন

Advertisement