Advertisement
০৫ ডিসেম্বর ২০২২
NSE

NSE Scam: স্টক এক্সচেঞ্জ দুর্নীতি: মুম্বই পুলিশের প্রাক্তন কমিশনার সঞ্জয়কে গ্রেফতার করল ইডি

চলতি বছরের গত ৩০ জুন অবসর নিয়েছিলেন সঞ্জয়। এর দু’দিন পরেই তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তলব করে নোটিস পাঠিয়েছিল ইডি।

সঞ্জয় পাণ্ডে।

সঞ্জয় পাণ্ডে। ফাইল চিত্র।

সংবাদ সংস্থা
মুম্বই শেষ আপডেট: ১৯ জুলাই ২০২২ ২১:০৬
Share: Save:

সপ্তাহ দু’য়েক আগেই আর্থিক তছরুপের মামলায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁকে তলব করেছিল এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। মঙ্গলবার ইডি গ্রেফতার করল মুম্বইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার সঞ্জয় পাণ্ডেকে।

Advertisement

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্চ (এনএসই)-এ কো-লোকেশন দুর্নীতির মামলায় দু’দিন জিজ্ঞাসাবাদের পর তাঁকে গ্রেফতার করা হয়েছে। সঞ্জয়ের বিরুদ্ধে এনএসই-র কয়েক জন আধিকারিকের ফোনে বেআইনি ভাবে নজরদারির অভিযোগের প্রমাণ মিলেছে বলে বলে খবর ইডি সূত্রে। ওই মামলায় গত এপ্রিল মাসে এনএসই-র প্রাক্তন ম্যানেজিং ডিরেক্টর তথা চিফ এগজিকিউটিভ অফিসার (সিইও) চিত্রা রামকৃষ্ণ এবং প্রাক্তন গ্রুপ অপারেটিং অফিসার (জিওও) আনন্দ সুব্রহ্মণ্যমের বিরুদ্ধে চার্জশিট জমা দিয়েছে আর এক কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই।

চিত্রা এবং আনন্দের বিরুদ্ধে ঘুষ নিয়ে বিশেষ সংস্থাকে কো-লোকেশন সুবিধা পাইয়ে দেওয়া, আর্থিক অনিয়ম এবং‌ নিয়ম ভেঙে কর্মীদের পদোন্নতি দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে। গত ৩০ জুন অবসর নেন সঞ্জয়। তার দু’দিন পরেই তাঁকে তলব করে নোটিস পাঠিয়েছিল ইডি। কো-লোকেশন মামলায় বেআইনি আর্থিক লেনদেনের অভিযোগ তোলার হয় তাঁর বিরুদ্ধে।

প্রসঙ্গত, দিল্লির ব্রোকিং সংস্থা ওপিজি সিকিউরিটিজ ও তার প্রোমোটার সঞ্জয় গুপ্ত নিয়ম ভেঙে এনএসই-র কো-লোকেশন ব্যবস্থার সুবিধা নিয়েছিলেন। এর ফলে অন্য ব্রোকারদের থেকে কিছুটা সময় আগেই লেনদেনের জন্য লগ-ইন করতে পারতেন এবং তার সাহায্যে মুনাফা লুটতেন সঞ্জয় এবং তার সহযোগী ব্রোকাররা। চিত্রা এবং আনন্দের পাশাপাশি ওই মামলায় মুম্বইয়ের প্রাক্তন পুলিশ কমিশনারও জড়িত বলে ইডি সূত্রের খবর।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.