Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৪ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

Vaccination-Govt Employees: টিকা না নিলে পাঠানো হবে বাধ্যতামূলক ছুটিতে,  সরকারি কর্মীদের সতর্ক করল পঞ্জাব প্রশাসন

সংবাদ সংস্থা
চণ্ডীগড় ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৭:৪৯
আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহ।

আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়েছেন পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহ।
ফাইল চিত্র।

হয় টিকা নিন, না হলে বাড়িতে থাকুন— সরকারি কর্মচারীদের সোজাসাপ্টা ভাষায় জানিয়ে দিল পঞ্জাব সরকার। নতুন একটি নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, যে সমস্ত সরকারি কর্মী এখনও করোনার প্রথম টিকা নিয়ে উঠতে পারেননি আগামী বুধবার থেকে তাঁরা কাজে ফিরতে পারবেন না। শুক্রবার পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, প্রথম টিকা না নেওয়া পর্যন্ত এই সরকারি কর্মীদের বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হবে।

পঞ্জাবে করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত একটি উচ্চপর্যায়ের পর্যালোচনা বৈঠক ডেকেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিংহ। শুক্রবার সেখানে তাঁকে জানানো হয় সরকারি স্কুলের শিক্ষক এবং কর্মীদের প্রত্যেকের প্রথম টিকা নেওয়া হয়ে গেলেও সরকারি দফতরের কর্মীদের কেউ কেউ এখনও টিকা নিতে দ্বিধাবোধ করছেন। এমনকি অনেকেই এখনও প্রথম টিকাও নেননি। এই রিপোর্ট জানার পরই সিদ্ধান্ত নেন অমরিন্দর। শুক্রবার তিনি বলেন, ‘‘সরকারি কর্মচারীরা যাতে প্রত্যেকে সময়ে টিকা পান তার জন্য প্রশাসন একাধিক পদক্ষেপ করেছিল। তারপরও যাঁরা টিকা এড়িয়ে গিয়েছেন, তাঁদের এ বার বাধ্যতামূলক ছুটিতে পাঠানো হবে। যতদিন না প্রথম টিকা নেওয়া হচ্ছে, ততদিন তাঁরা কাজে ফিরতে পারবেন না।’’ আগামী ১৫ সেপ্টেম্বর থেকেই এই নিয়ম কার্যকর হবে বলে জানিয়ে অমরিন্দর বলেছেন, ‘‘যাঁরা ইতিমধ্যে টিকা নিয়েছেন, তাঁরা এই কয়েকজনের টিকা নিয়ে অকারণ দ্বিধার মূল্য দেবেন কেন!’’

পঞ্জাব সরকার শুক্রবার এ নিয়ে একটি নির্দেশিকা জারি করেছে। তাতে সরকারি কর্মচারীদের পাশাপাশি শিক্ষক এবং শিক্ষাকর্মীদের প্রতিও বেশ কয়েকটি নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রীর দফতর জানিয়েছে, স্কুলের যে সমস্ত শিক্ষক এবং কর্মীর প্রথম টিকা নেওয়া হয়ে গিয়েছে তাঁরা আরটিপিসিআর পরীক্ষার নেগেটিভ রিপোর্ট দেখিয়ে কাজে যোগ দিতে পারেন। তবে যাঁদের কোমর্বিডিটি রয়েছে, তাঁরা সম্পূর্ণ টিকাকরণের পরই শিক্ষকতার কাজে বা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফিরতে পারবেন।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement