Advertisement
২৫ সেপ্টেম্বর ২০২৩
Tribal student

জামা নোংরা কেন? আদিবাসী বালিকার জামা খুলে নিজে কেচে দেন, মধ্যপ্রদেশে সাসপেন্ড শিক্ষক

সংশ্লিষ্ট বিভাগের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ‘স্বচ্ছতা মিত্র’ শিরোনামে ওই ছবিও দিয়েছিলেন শিক্ষক। সমাজ মাধ্যমে ওই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই আপত্তি জানান গ্রামবাসীরা।

মধ্যপ্রদেশে সাসপেন্ড শিক্ষক।

মধ্যপ্রদেশে সাসপেন্ড শিক্ষক। প্রতীকী ছবি।

সংবাদ সংস্থা
নয়াদিল্লি শেষ আপডেট: ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ ১৮:৪৯
Share: Save:

মধ্যপ্রদেশের একটি স্কুলের শিক্ষককে সাসপেন্ড করা হয়েছে। তাঁর বিরুদ্ধে অভিযোগ, ক্লাসে এক পঞ্চম শ্রেণির পড়ুয়ার পোশাকে ময়লা ছিল। সেই পোশাক খুলিয়ে, তা কেচে দেন তিনি। গোটা সময় সহপাঠীদের সামনে এক বস্ত্রে অপেক্ষা করতে হয় ১০ বছরের বালিকাকে।

মধ্যপ্রদেশের শাহদোল জেলার বারাকালা গ্রামের স্কুলের একটি ছবি গত শুক্রবার থেকে সমাজমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। তাতে দেখা যাচ্ছে, পঞ্চম শ্রেণির এক বালিকা অন্তর্বাস পরে দাঁড়িয়ে আছে এবং শিক্ষক, শ্রবণকুমার ত্রিপাঠী কাছেই বসে তার জামা ধুয়ে দিচ্ছেন। যত ক্ষণ না জামাকাপড় না শুকোয়, প্রায় দু’ঘণ্টা বালিকাকে ওই অবস্থাতেই থাকতে হয়।

এই ঘটনা প্রকাশ্যে আসার পরই সাসপেন্ড করা হয় সরকারি প্রাথমিক স্কুলের ওই শিক্ষককে। বিভাগের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ‘স্বচ্ছতা মিত্র’ শিরোনামে ওই ছবি দিয়েছিলেন শিক্ষক। সমাজ মাধ্যমে ওই ছবি ছড়িয়ে পড়তেই আপত্তি জানান গ্রামবাসীরা।

এর পরই রাজ্যের আদিবাসী কল্যাণ দফতরের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার আনন্দ রাই সিন্‌হা বলেন, ‘‘ঘটনার খবর ও ছবিটি দেখার পরই শনিবার ওই শিক্ষককে সাসপেন্ড করা হয়েছে।’’ তিনি জানান, পড়ুয়ার স্কুলের পোশাকটি ময়লা দেখে ওই শিক্ষক তার পোশাক খুলিয়ে নিজে কেচে দিয়েছেন। কিন্তু গোটা সময়টি ছাত্রীকে তার সহপাঠীদের সামনেই বসে থাকতে হয়েছিল। ঘটনার তদন্তেরও নির্দেশ দিয়েছেন অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE