Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

সততার মূল্য দিতেই হয়, লিখলেন লাভাসা

গত লোকসভা ভোটের সময়ে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ থেকে নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহকে ছাড় দেওয়ায় আপত্তি জানান অশোক।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৯ ডিসেম্বর ২০১৯ ০১:৩১
Save
Something isn't right! Please refresh.
ছবি: সংগৃহীত।

ছবি: সংগৃহীত।

Popup Close

সত্যের পথ সব সময়েই বন্ধুর, নিষ্ঠুর, সে পথে চলতে অনেক শক্তি ক্ষয় হয়। স্ত্রীয়ের বিরুদ্ধে স্ট্যাম্প ডিউটি ফাঁকি দেওয়ার অভিযোগ ওঠার পর শনিবার একটি উত্তর-সম্পাদকীয়তে এমনই লিখলেন নির্বাচন কমিশনার অশোক লাভাসা। লিখলেন, ‘‘সততার মূল্য দিতেই হয়। সেই মূল্য দেওয়ার জন্য তৈরি থাকতে হবে, তা সরাসরি ব্যক্তিবিশেষের ক্ষতি হতে পারে বা পারিপার্শ্বিক ক্ষতি। এ সবই সততারই অঙ্গ।’’

গত লোকসভা ভোটের সময়ে নির্বাচনী বিধিভঙ্গের অভিযোগ থেকে নরেন্দ্র মোদী এবং অমিত শাহকে ছাড় দেওয়ায় আপত্তি জানান অশোক। তার পর থেকে তাঁর পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে আয়কর দফতর কর ফাঁকির অভিযোগ দায়ের করেই চলেছে। বিরোধীরা যাকে প্রতিহিংসার নমুনা বলেই ব্যাখ্যা করছেন।

২০১৭-২০১৮-য় গুরুগ্রামের একটি ফ্ল্যাট ননদ শকুন্তলাকে হস্তান্তরের সময়ে অশোকের স্ত্রী নোভেল স্ট্যাম্প ডিউটি ফাঁকি দিয়েছেন, এই অভিযোগে হরিয়ানা প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছে আয়কর দফতর। যদিও নোভেল জানিয়েছেন, ১০ লক্ষেরও বেশি টাকা ডিউটি দিয়েছেন তিনি এবং তার নথিও আছে।

Advertisement

আরও পড়ুন: প্রতিবাদের নতুন ধরন, ফেজ টুপি ও হিজাব পরে চার্চে প্রার্থনা কেরলের যুবক-যুবতীদের

তাঁকে এবং তাঁর পরিবারকে যে পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে, সে দিকে ইঙ্গিত করে লাভাসা লিখেছেন, সৎ মানুষ শারীরিক ভাবে শক্তিশালী না-ই হতে পারেন, কিন্তু তাঁরা সাহসী এবং সাহসই তাঁদের শক্তি। নিবন্ধে লেখা হয়েছে, ‘‘এই প্রয়োজন, দুঃখ বা একাকিত্বের সময়ে যাঁরা পাশে দাঁড়ান না, তাঁদের সে সাহসটা নেই। এঁরা দর্শক, নাটক শেষ হলে হাততালি দেবেন। কেউ কেউ হয়তো চোখের জল ফেলবেন, সহমর্মিতা দেখাবেন, কিন্তু সক্রিয় হবেন না, বরং অন্যের দুঃখকষ্টটা দাঁড়িয়ে দেখবেন।’’

দেশের মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরার অবসরের পর অশোকের সেই পদে বসার কথা। অশোক লিখেছেন, ‘‘সৎ মানুষেরা যাদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছেন, তারা নীরবে এই উত্থান মেনে নেবে, এমন ভাবার কারণ নেই। তারা প্রত্যাঘাত করবে এবং তার ফলে একাই যন্ত্রণা সহ্য করতে হবে, এমনকি চোখে পড়ার মতো একঘরে করা হতে পারে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement