Advertisement
২১ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Madhya Pradesh Incident

যুবককে রাস্তার মাঝে মারধরের অভিযোগ বজরং দলের বিরুদ্ধে, আদিবাসী নিগ্রহে উত্তপ্ত মধ্যপ্রদেশ

ঘটনার নিন্দা করে সমাজমাধ্যমে ভিডিয়োটি পোস্ট করেন মধ্যপ্রদেশের রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি জিতু পাটোয়ারি। সেই সঙ্গে পুলিশকে ব্যবস্থা নেওয়ারও আর্জি জানান তিনি। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই চঞ্চলদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়।

Tribal man beaten by Bajrang dal member in Medhya Pradesh

যুবককে রাস্তার মাঝে মারধরের অভিযোগ বজরং দলের বিরুদ্ধে। ছবি এক্স (সাবেক টুইটার)

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ১২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ১৪:৪২
Share: Save:

আদিবাসী যুবকের উপর শারীরিক নিগ্রহের অভিযোগে আবারও খবরের শিরোনামে চলে এল মধ্যপ্রদেশ। সমাজমাধ্যমে একটি ভিডিয়ো প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে। সেই ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, কয়েক জন মিলে এক জন যুবককে ঘিরে ধরে মারধর করছে। শুধু তা-ই নয়, নিগৃহীত যুবককে কান ধরে মাটিতে উবু হয়ে বসে থাকতে বাধ্য করা হয়। যদিও এই ভিডিয়োর সত্যতা যাচাই করেনি আনন্দবাজার অনলাইন।

ঘটনাটি মধ্যপ্রদেশের রাজধানী ভোপাল থেকে ১৭৮ কিলোমিটার দূরে বেতুলে ঘটেছে বলে দাবি করা হয়েছে। সমাজমাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, এক যুবকের ওপর চড়াও হয়েছেন কয়েক জন। তাঁকে মারধরও করা হয়। মারের চোটে যুবকের মুখ থেকে রক্ত ঝরছে। তার পর তাঁকে মাটিতে বসিয়ে দেওয়া হয়। নির্যাতিত বার বার তাঁকে ছেড়ে দেওয়ার অনুরোধ করছেন।

সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, নির্যাতিতর নাম রাজু উইকে। আদিবাসী এই যুবক গান-বাজনার সঙ্গে যুক্ত। এ ছাড়াও বেতুলের আদিবাসী সম্প্রদায়ের জন্য কাজ করেন তিনি। হামলাকারীদের নেতৃত্বে ছিলেন এলাকার বজরং দলের সদস্য চঞ্চল রাজপুত। পরে রাজু নিজেও একটি ভিডিয়ো পোস্ট করে নিজের অভিজ্ঞতার কথা বর্ণনা করেছেন।

তিনি বলেন, ‘‘আমি রাত ১১টা নাগাদ কাজ সেরে বাড়ি ফিরছিলাম। সুভাষ স্কুলের কাছে আসতেই চঞ্চল রাজপুত এবং তাঁর বন্ধুরা আমাকে ঘিরে ধরে মারধর শুরু করে। কেন আমায় মারছে, সেটা জানতে চাওয়ায় আরও রেগে যায় তারা। আমায় কটূক্তিও করেছে।’’

ঘটনার নিন্দা করে সমাজমাধ্যমে ভিডিয়োটি পোস্ট করেন মধ্যপ্রদেশের রাজ্য কংগ্রেস সভাপতি জিতু পাটোয়ারি। সেই সঙ্গে পুলিশকে ব্যবস্থা নেওয়ারও আর্জি জানান তিনি। ঘটনা প্রকাশ্যে আসতেই চঞ্চলদের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়। বেতুলের পুলিশ সুপার (এসপি) সিদ্ধার্থ চৌধুরী জানান, শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তও শুরু হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, গত বছর এক আদিবাসী ব্যক্তির মুখে প্রবেশ শুক্ল নামে এক বিজেপি নেতার প্রস্রাব করার ঘটনা গোটা দেশে সাড়া ফেলে দিয়েছিল। বিতর্কের মুখে দশমত রাওয়াত নামে ওই আদিবাসী ব্যক্তিকে নিজের বাসভবনে ডেকে এনে স্বহস্তে তাঁর পা ধুয়ে দিয়ে ক্ষমা চেয়েছিলেন মধ্যপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী শিবরাজ সিং চৌহান। গ্রেফতার করা হয়েছিল প্রবেশ শুক্লকেও। তার পরও মধ্যপ্রদেশে আদিবাসীদের হেনস্থা করার ঘটনা ঘটেছে। শনিবারের ঘটনা সেই তালিকায় নতুন সংযোজন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE