উচ্ছ্বাস ট্রাম্পের টুইটে, শান্তির বার্তা ইমরানের
বেশি চর্চা অবশ্য মোদীর সঙ্গে ইমরান খানের টুইট চালাচালি নিয়ে। মোদী, বিজেপি ও শরিকদের অভিনন্দন জানিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী  টুইট করেন, ‘‘দক্ষিণ এশিয়ার শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির লক্ষ্যে একসঙ্গে কাজ করতে চাই।’’
Donald trump

ডোনাল্ড ট্রাম্প।

চূড়ান্ত ফলাফল প্রকাশ হয়নি তখনও। নরেন্দ্র মোদীর কাছে আসতে শুরু করল বিদেশি রাষ্ট্রনেতাদের শুভেচ্ছাবার্তা— প্রধানমন্ত্রীর কুর্সিতে প্রত্যাবর্তনের জন্য।

ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটারে সরাসরি লিখলেন, মোদীর প্রত্যাবর্তনের পরে ভারত-মার্কিন সম্পর্কে দারুণ কিছু অপেক্ষা করছে। মোদী ও বিজেপিকে অভিনন্দন জানিয়ে মার্কিন প্রেসিডেন্টের বক্তব্য, ‘‘গুরুত্বপূর্ণ কাজগুলি একসঙ্গে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার অপেক্ষায় আছি।’’ মোদী যে ফিরতে পারেন— চিন, আমেরিকা ও পাকিস্তানের মতো দেশগুলি তার ইঙ্গিত দিয়েছিল আগেই। ভোট চলাকালীনই মাসুদ আজহারকে আন্তর্জাতিক জঙ্গি তালিকায় আনতে রাজি হয় চিন। যার ফলে মোদীর হাতই শক্ত হয়। আজ মোদীকে চিঠি পাঠিয়ে চিনা প্রেসিডেন্ট শি চিনফিং বলেছেন, দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ককে নয়া উচ্চতায় নিয়ে যেতে চান তিনিও।

বেশি চর্চা অবশ্য মোদীর সঙ্গে ইমরান খানের টুইট চালাচালি নিয়ে। মোদী, বিজেপি ও শরিকদের অভিনন্দন জানিয়ে পাক প্রধানমন্ত্রী  টুইট করেন, ‘‘দক্ষিণ এশিয়ার শান্তি, অগ্রগতি ও সমৃদ্ধির লক্ষ্যে একসঙ্গে কাজ করতে চাই।’’ জবাবে রাতে মোদী লেখেন, ‘‘আপনাকে উষ্ণ কৃতজ্ঞতা। আমি বরাবর এলাকার শান্তি ও উন্নতিকে প্রাধান্য দিয়েছি।’’ বস্তুত, ইমরান আগেও বলেছেন, মোদী ফের ক্ষমতায় এলে শান্তি আলোচনার পাশাপাশি কাশ্মীর সমস্যা সমাধানের সম্ভাবনা বাড়বে। তার পরেই পুলওয়ামা ও তার পাল্টা বালাকোট অভিযান দু’দেশের সম্পর্কে বরফ জমিয়েছে। কিন্তু গত কাল কিরঘিজস্তানে সাংহাই কোঅপারেশন অর্গানাইজেশনের বৈঠকে পাক বিদেশমন্ত্রীকে এক মঞ্চে পেয়েও সীমান্তপারের সন্ত্রাস প্রসঙ্গে কিছু বলেননি বিদায়ী বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। অনেকের মতে, ভোটের প্রচারে জাতীয়তাবাদ নিয়ে লাগাতার সুর চড়ালেও পরবর্তী সরকারের নেতা হিসেবে নিজের ‘শান্তিদূত’ ভাবমূর্তি তুলে ধরার প্রয়াস শুরু করে দিয়েছেন মোদী।

তিস্তা চুক্তি না-হলেও গত পাঁচ বছরে নানা ক্ষেত্রে মোদী সরকারকে পাশে পেয়েছে বাংলাদেশ। আজ তাই চূড়ান্ত ফল প্রকাশের আগেই মোদীর উদ্দেশে সে দেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘‘বিশ্বের সর্ববৃহৎ গণতন্ত্রের নাগরিকদের বিশ্বাস ও ভরসার প্রতিচ্ছবি এই জয়।’’ অভিনন্দন জানিয়েছেন ভুটানের রাজা জিগমে খেসর নামগিয়েল ওয়াংচুক, সংযুক্ত আরব আমিরশাহির যুবরাজ মহম্মদ বিন জ়ায়েদ আল-নাহয়ান, নেপালের প্রধানমন্ত্রী কে পি শর্মা ওলি, আফগান প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি, অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। শুভেচ্ছাবার্তা এসেছে শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট মৈত্রীপালা সিরিসেনা এবং প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিংহের কাছ থেকে। ফোন করেছেন মলদ্বীপের প্রেসিডেন্ট ও মরিশাসের প্রধানমন্ত্রী।

মোদীকে প্রথম শুভেচ্ছা জানান ইজ়রায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেঞ্জামিন নেতানিয়াহু। হিব্রু ও হিন্দিতে তিনি টুইট করেন, ‘‘ভারত-ইজ়রায়েলের বন্ধুত্ব আমরা এ ভাবেই এগিয়ে নিয়ে যাব।’’ এই দুই রাষ্ট্রনেতার ঘনিষ্ঠ সম্পর্কের কথা বহু আলেচিত। মোদীই প্রথম ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী, যিনি ইজ়রায়েল সফরে গিয়েছিলেন। মোদীকে ফোন করেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল মাকরঁ, রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। শুভেচ্ছা জানানোর পাশাপাশি আগামী মাসে ওসাকায় জি-২০ সম্মেলনে মোদীকে আমন্ত্রণ জানিয়েছেন জাপানের প্রধানমন্ত্রী শিনজো আবে।

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত