• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

অক্সফোর্ডের করোনা টিকার তথ্য চুরির চেষ্টা উত্তর কোরিয়ার হ্যাকারদের

Haccking
পরিচয় গোপন রেখে টিকা গবেষণার সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, একটি হ্যাকিং ক্যাম্পেনের অংশ হিসাবেই এই কোড পাঠানো হয়েছিল। প্রতীকী চিত্র

করোনা টিকা অ্যস্ট্রাজেনেকার সিস্টেম হ্যাক করা চেষ্টা করছে উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররা, এমনটাই জানাচ্ছে সংবাদ সংস্থা রয়টার্স। সংবাদ সংস্থাকে টিকা প্রকল্পের সঙ্গে যুক্ত দুই ব্যক্তি এমনটাই জানিয়েছে বলে খবর। জানা গিয়েছে, হোয়াটস অ্যাপ ও লিনংকড ইন ওয়েবসাইটে অ্যাস্ট্রাজেনেকার কর্মীদের চাকরি দেওয়ার নাম করে টোপ দিচ্ছিল হ্যাকাররা। তারপর তারাই একাধিক নথি ওই কর্মীদের কম্পিউটারে পাঠাচ্ছিল, যেখানে সন্দেহজনক কোড লেখা ছিল। সেই কোডের সাহায্যেই কর্মীর কম্পিউটার হ্যাক করতে চাইছিল তারা।

সূত্রের খবর, একটা বড় সংখ্যক কর্মীর কাছেই এই ধরনের প্রস্তাব এসেছিল। এই তালিকায় ছিলেন টিকা গবেষণায় যুক্ত কর্মীরাও। তবে হ্যাকিংয়ের চেষ্টা সফল হয়নি বলেই জানা গিয়েছে। রাষ্ট্রসঙ্ঘে কোরিয়ার দূত এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে চাননি। তবে এর আগেও উত্তর কোরিয়ার হ্যাকাররা যে এমন কাণ্ড ঘটিয়েছিল, সে কথা গোটা বিশ্ব জানে।

পরিচয় গোপন রেখে টিকা গবেষণার সঙ্গে যুক্ত এক ব্যক্তি জানিয়েছেন, একটি হ্যাকিং ক্যাম্পেনের অংশ হিসাবেই এই কোড পাঠানো হয়েছিল। এই বিষয়ে সাইবার বিশেষজ্ঞ ও আমেরিকার সাইবার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বিভাগ থেকে উত্তর কোরিয়ার ঘাড়েই দোষ চাপানো হয়েছে। এর আগে এদের লক্ষ ছিল বিভিন্ন সামরিক সরঞ্জাম তৈরির কারখানা ও সংবাদমাধ্যম। কিন্তু করোনা প্রকোপ ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে তাঁরা এই বিষয়ে বিশ্বব্যাপী চলা গবেষণার নাগাল পেতে চাইছে বলে তাঁদের অনুমান।

আরও পডুন: ‘হিন্দুধর্ম বিরোধী’ অনুরাগ বসু! ট্রেন্ড হচ্ছে টুইটারে

বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, হতে পারে এই তথ্য অর্থের বিনিময়ে হ্যাকাররা বিক্রি করতে পারে। রাজনৈতিক লাভের জন্য অন্য দেশের হাতেও তুলে দিতে পারে। মাইক্রোসফটের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছিল, তারা দু’টি সংগঠনের খোঁজ পেয়েছে, যারা বিভিন্ন দেশের করোনা গবেষণার ফল হাতাতে চেষ্টা করছে। যদিও কোনও হ্যাকিং সংগঠনের নাম মাইক্রোসফট করতে চায়নি।   

আরও পডুন: মালদহের তৃণমূল নেতাদের কলকাতায় জরুরি তলব

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন