উগান্ডার কাটওয়ে বস্তির ফিয়োনা মুতেসি কে মনে আছে? ‘কুইন অব কাটওয়ে’ সিনেমায় আমরা দেখেছিলাম দারিদ্রে জর্জরিত বস্তির মেয়ে ফিয়োনার ওয়ার্ল্ড চেজ অলিম্পিয়াডে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার কাহিনি। সেই কাহিনিরই পুনরাবৃত্তি হল আট বছরের ছোট্ট তানির হাতে। বোকো হারাম জঙ্গিদের হাত থেকে বাঁচতে নাইজেরিয়া থেকে পালিয়ে আমেরিকায় শরণার্থী হিসাবে আশ্রয় নিয়েছিল তানির পরিবার। তার এক বছর পরেই নিউইয়র্ক স্টেট চেজ চ্যাম্পিয়নশিপ খেতাব জিতল তানি।

নাইজেরিয়ায় থাকতে কোনওদিন দাবা খেলার সুযোগ হয়নি তার। ২০১৭-র শেষের দিকে শরণার্থী হিসাবে আমেরিকায় আসে তানির পরিবার। আমেরিকায় আসার পরই দাবা খেলায় আকৃষ্ট হয় তানি।দাবা খেলার জন্য মায়ের কাছে জেদ করে সে। জেদ দেখে ছেলেকে শেষ পর্যন্ত চেজ ক্লাবে ভর্তি করে দেন।

ক্লাবে ভর্তি হয়েই দাবা নিয়ে স্বপ্নের জাল বুনতে শুরু করে ছোট্ট তানি। কিন্তু তার এই স্বপ্ন বোনার পথে বাধা ছিল অনেক। শরণার্থী হওয়ায় জন্য স্কুলের বন্ধুদের কটাক্ষও সহ্য করতে হয়েছে তাকে। কিন্তু স্বপ্ন বোনা থামেনি। আট বছর বয়সে নিউইয়র্ক স্টেট চেজ চ্যাম্পিয়ন হয়ে তানির সেই স্বপ্ন পরিপূর্ণতা পেল। এই খেতাব জেতার পর তানি বলেছে, ‘‘আমি সর্বকনিষ্ঠ গ্রান্ডমাস্টার হতে চাই।’’ 

আরও পড়ুন: ‘চিন থেকে নয়, আমার উত্তরসূরি আসবেন ভারত থেকে’, বললেন দলাই লামা