আমরা প্রত্যেকেই সময়ে গন্তব্যে পৌঁছনর জন্য কী না করি! দৌড়ে গিয়ে বাস, ট্রেন ধরি। অতিরিক্ত পয়সা খরচ করে ট্যাক্সি ধরি। অনেক সময় নিয়ম ভেঙে বাস দাঁড় করানোর চেষ্টাও করি। কখনও কখনও ট্রাফিক সিগন্যাল ভাঙার মতো অন্যায়ও করি। কিন্তু এই চৈনিক মহিলা যা করলেন তা মনে হয় কেউ স্বপ্নেও ভাবতে পারবেন না!

চিনের গুয়ানঝউ রেলস্টেশনে দেরিতে পৌঁছন এক মহিলা। সঙ্গে ছিলেন আরও দুই বন্ধু। দেরি হয়ে যাওয়ায় তিনি লাফিয়ে প্ল্যাটফর্মের গেট পেরিয়ে ট্রেন ধরতে দৌড়ন। প্ল্যাটফর্মের কর্মীরা তাঁদের বোঝানোর চেষ্টা করেন, তিনি এই ট্রেনটি ইতিমধ্যেই মিস করেছেন। কিন্তু এই তিন জন সে কথায় কান দেননি।

এখানেই শেষ নয়, ট্রেনের কাছে পৌঁছে মহিলা দেখেন, দরজা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। তিনি পা দিয়ে ট্রেন আটকানোর চেষ্টা করেন। ফলে ট্রেন ও প্ল্যাটফর্মের মাঝে তাঁর পা আটকে যায়।

আরও পড়ুন : ৯৬ বছরে এই গতি, ভাবতে পারেন!

আরও পড়ুন : ‘মেয়েদের জন্য বিয়ার’ আনার কথা প্রচার করে বিতর্কে গুরুগ্রামের পানশালা

বহু চেষ্টা করে শেষমেশ ওইমহিলাকে আটকানো হয়। যদিও তিনি শেষ পর্যন্ত জেদ ধরে ছিলেন, তাঁকে ওই ট্রেনেই উঠতে দিতে হবে। কারণ তিনি অফিসে দেরিতে পৌঁছতে চান না। নিয়ম ভাঙার জন্য তাঁকে আটক করেছে পুলিশ। তাঁর বন্ধুদের সতর্ক করা হয়েছে, ভবিষ্যতে তাঁরা যেন এমন না করেন। এই কাণ্ডের ফলে নির্দিষ্ট সময়ের থেকে ৭ মিনিট দেরিতে ছাড়ে ট্রেন।