সার্কাসে পশুপাখির খেলা দেখানোর বিরুদ্ধে বহুদিন ধরেই আপত্তি জানিয়ে আসছেন পশুপ্রেমীরা। তার প্রভাবও পড়তে শুরু করেছে বিশ্বজুড়ে। ভারত-সহ বহু দেশের সার্কাসেই বেশ কিছু পশু পাখির খেলা দেখানো নিষিদ্ধ। বিভিন্ন ভাবে সেই অভাব পূরণের চেষ্টাও হয় সার্কাস শিল্পকে বাঁচানোর জন্য। তবে এবার এক জার্মান সার্কাসের দল যা করল তা মনে রাখার মতো।

১৯৭৬ সাল থেকে খেলা দেখাচ্ছে সার্কাস রোনকলি। কিন্তু এবার তারা আর পশু পাখি ব্যবহার করতে চান না মানুষের বিনোদনের জন্য। তার বদলে তাঁরা থ্রি-ডি হলোগ্রাম ব্যবহার করতে শুরু করেছেন। তাঁদের নতুন এই সার্কাসের একটি ভিডিয়ো প্রকাশ পেয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে থ্রি-ডি হলোগ্রামে ঘোড়া, হাতি মঞ্চে এসে খেলা দেখাচ্ছে। আর তা দেখে দর্শকরা হাততালিও দিচ্ছেন।

সার্কাস কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, এই থ্রি-ডি সার্কাসের জন্য খরচ হয়েছে পাঁচ লক্ষ ইউরোর বেশি, ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় ৩ কোটি ৮৯ লক্ষ টাকার মতো। ১০৫ ফুট চওড়া, ১৬ ফুট উঁচু অংশ জুড়ে ৩৬০ ডিগ্রি দৃশ্যমান হলোগ্রামে খেলা দেখানো হচ্ছে। ব্যবহার করা হয়েছে উন্নত থ্রি-ডি প্রযুক্তি।

 

সার্কাস রোনকলির এই উদ্যোগে খুশি পশুপ্রেমীরাও। নেটিজেন প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছে এই উদ্যোগকে। তাঁদের দাবি, সার্কাস রোনকলির এই উদ্যোগে বাকিরাও যদি উত্সাহিত হয় তবে তার থেকে ভাল আর কিছু হয় না।

আরও পড়ুন : মুখ খুলে কয়েন খেয়ে নিচ্ছে ‘অদ্ভুত’, ইন্টারনেটে ভাইরাল টাকার ব্যাগ

আরও পড়ুন : এ বার দেহরক্ষীকে চড় মেরে বিতর্কে সলমন খান