• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কলা দিয়ে হেয়ার মাস্ক, নিয়মিত ব্যবহারে ফিরবে চুলের জেল্লা

hair mask
কলার সঙ্গে মধু, দই মিশিয়ে লাগালে ফিরবেই জেল্লা।

Advertisement

যতই মেকআপ করুন, চুলে যদি জেল্লা না থাকে, কোথায় যেন একটা ফাঁক থেকে যায়। রুক্ষ চুলের সমস্যায় অনেকেই ভোগেন। আর চুলের সমস্যায় যাঁরা ভোগেন, তাঁরা জানেন এই সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া মোটেই সহজ নয়।

চুলে প্রাণ না থাকলে তাতে কোনও রকম স্টাইলও করা যায় না। আর রুক্ষ চুলের যত্ন না নিলে ডগা ফাটা, চুল পড়ার মতো সমস্যা লেগেই থাকে। তবে কথায় কথায় তো আর পার্লারে ছোটা সম্ভব নয়। এতে অর্থ আর সময় দুটোই ব্যয় হয়। তাই জেনে নেওয়া যাক বাড়িতে কলা দিয়ে কী ভাবে হেয়ার মাস্ক তৈরি করবেন।

কলা দিয়ে কী কী হেয়ার মাস্ক তৈরি করতে পারবেন জেনে নিন-

১) চুলে যদি আর্দ্রতার অভাব থাকে ও খুশকির সমস্যায় প্রায়ই ভুগতে থাকেন, তা হলে এই প্যাকটি ব্যবহার করুন। একটা পাকা কলার সঙ্গে টক দই ও দু’চামচ মধু মিশিয়ে চটকে ভাল করে মিশ্রণ তৈরি করুন। এ বার মিশ্রণটি তৈরি হয়ে গেলে স্ক্যাল্প ও চুলে ভাল করে মাস্কটি লাগান। আধ ঘণ্টা মাস্কটি রেখে ভাল করে শ্যাম্পু করুন।

আরও পড়ুন: কনট্যাক্ট লেন্স পরে চোখের মেকআপ! মাথায় রাখুন এই বিষয়গুলি

২) যাঁদের চুল মাত্রাতিরিক্ত শুকনো, তাঁরা এই মাস্ক ব্যবহার করুন। পাকা কলা আগে ভাল করে চটকে নিন। তাতে এর পর নারকেলের দুধ মিশিয়ে নিন। হালকা চুল ভিজিয়ে চুলের গোড়ায় এই মাস্ক লাগান। আস্তে আস্তে স্ক্যাল্পে মাসাজ করুন। এতে চুলের ডিপ কন্ডিশনিং হয়।

আরও পড়ুন: ঋতুস্রাব চলাকালীন পেটে অসহ্য যন্ত্রণা, ওষুধ না খেয়ে কী করবেন জানুন

৩) চুলে পুষ্টি জোগাতে কলার সঙ্গে পেঁপে আর মধুর মাস্ক ব্যবহার করুন। পরিমাণ মতো পাকা কলার সঙ্গে পাকা পেঁপে চটকে মাখুন। এর পরে মিশ্রণটি তরল করতে মধু মেশান। স্ক্যাল্প থেকে পুরো চুলে মেখে শাওয়ার ক্যাপ পরে নিন। ৪৫ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

৪) কলা, ডিম ও মধু দিয়েও একটি মিশ্রণ তৈরি করতে পারেন। দুটো কলা চটকে তাতে একটা ডিম মিশিয়ে নিন। এর পরে একটু মধু মিশিয়ে মাস্কটি স্ক্যাল্পে লাগান। দেখবেন যাতে পুরো চুলে লাগে মাস্কটি। এর পরে ৩০ মিনিট রেখে শ্যাম্পু করে নিন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন