ত্বকে তরতাজা আমেজ নিয়ে সারাটা দিন কাটানোর ইচ্ছা থাকে সকলেরই। কোমল ও উজ্জ্বল ত্বকই দিতে পারে সেই সজীবতা। ত্বকের তারুণ্য ধরে রাখতে গেলে প্রতি দিন যেমন তাকে আর্দ্র রাখতে হয়, করতে হয় নূন্যতম যত্নটুকু, তেমনই রাতে শুতে যাওয়ার আগেও অবশ্যই তুলে নিতে হবে ত্বকের সব মেক আপ। নইলে ত্বকের শুষ্কতা, ব্রণর মতো একাধিক সমস্যা দেখা দিতে পারে। আসতে পারে বলিরেখাও। শুধুমাত্র মুখের মেক আপই নয়, চোখের মেক আপও ভাল করে না তুলে শুতে গেলে চোখের সংক্রমণ, জ্বালাভাব, চোখের পাতা কমে আসার সমস্যাও হতে পারে।

এখনকার ব্যস্ত জীবনে নিজের যত্ন নেওয়ার সময় খুব কম মানুষই পান। সারা দিনের কর্মব্যস্ততার পর বাড়ি ফিরে বেশির ভাগ মানুষই মেক আপ তোলায় আলস্য দেখান। কখনও বা দায়সারা গোছে মেকল আপ তুলেই ক্ষান্ত দেন। ওই অবস্থাতেই ঘুমিয়ে পড়েন অনেকে। ফলস্বরূপ মেলে রুক্ষ ও দাগ-ব্রণযুক্ত ত্বক। তবে সামান্য সময় বার করে এই কয়েকটি ধাপে খুব সহজেই তুলে নেওয়া যায় মেক আপ।

ক্লিনজার ব্যবহার করুন: ক্লিনজার দিয়ে প্রথমেই মুখ থেকে ফাউন্ডেশন এবং কনসিলরের পরত উঠিয়ে ফেলুন। যদি সে সব নাও মেখে থাকেন, তবুও সারা দিনের ধুলোবালি ও বহু আগে মাখা ময়শ্চারাইজার, সানস্ক্রিন তুলতেও ক্লিনজার ব্যবহার করুন। মুখে, গলায় এটি লাগিয়ে ১৫-২০ সেকেন্ড খুব আলতো ভাবে ম্যাসেজ করুন। এতে মেক আপের পরত ত্বক থেকে আলগা হয়ে আসবে এবং খুব সহজেই তোলা যাবে। এর পর একটি নরম সাদা রুমাল বা ভিজে টিসু কিংবা  তুলোর সাহায্যে তুলে ফেলুন মেক আপ। দীর্ঘস্থায়ী মেক আপ তুলতে অয়েল বেসড মেক আপ রিমুভার ব্যবহার করুন।

আরও পড়ুন: পলিসিস্টিক ওভারির শিকার অনেকেই, কী ভাবে সামলাবেন, উপসর্গই বা কী?

চোখের ক্ষেত্রে বিশেষ নজর দিন: চোখের মেক আপ তোলার সময় একটু যত্ন নিতে হবে। যাতে চোখের কোনও ক্ষতি না হয় সেই দিকে খেয়াল রাখতে হবে। চোখের মেক আপ তোলার জন্য বিশেষ মেক আপ রিমুভার পাওয়া যায়। তা কাছে না থাকলে ব্যবহার করতে পারেন বেবি অয়েল। তুলোয় কিছুটা ক্লিনজার অথবা তেল নিয়ে আস্তে আস্তে আইলাইনার তুলে ফেলুন। মাশকারা তুলতে ব্যবহার করুন ভেসলিন।

স্টিম হিটের ব্যবহার: হাতে একটু বেশি সময় থাকলে ও চড়া মেক আপ থাকলে নিতে পারেন স্টিম হিট। খুব একটা ঝক্কির ব্যাপার নয় এটি। একটি বড় মাপের বাটিতে গরম জল নিয়ে কিছু ক্ষন সেই গরম জলের ভাপ ত্বকে নিন। এতে ত্বকের রন্ধ্রগুলি আলগা হয়ে যাবে এবং মেক আপ খুব সহজে উঠে আসবে।

আরও পড়ুন: লিপস্টিক ছাড়া ঠোঁটের নুডিটিতেই বাজিমাত? যত্ন নিন এ ভাবে

অতিরিক্ত তেল মুছে ফেলুন:  প্রতি দিন মেক আপের প্রয়োগ এব‌ং ধুলোবালির কারণে অনেক সময়ই ত্বক তৈলাক্ত হয়ে পড়ে। এর ফলে, মুখে ব্রণ, এলার্জি হতে শুরু করে। তাই মেক আপ তুলে ফেলার পর একটি শুকনো টিসু দিয়ে মুখে থাকা অতিরিক্ত তৈলাক্ত ভাব মুছে ফেলুন।

তুলে ফেলুল ঠোঁটের মেক আপ: ঠোঁটের মেক আপ তোলার জন্য বিশেষ রিমুভার পাওয়া যায়। না থাকলে ব্যবহার করতে পারেন বেবি অয়েল কিংবা ক্রিম। তুলোতে রিমুভার কিংবা ক্রিম নিয়ে তা দিয়ে তুলে ফেলুন ঠোঁটের মেক আপ।

ব্যবহার করুন ময়শ্চারাইজার: মেক আপ তোলার পর ময়শ্চারাইজার ব্যবহার করতে ভুলবেন না। মেক আপ তোলার পর অনেক সময়ই শুষ্ক হয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা থাকে। ময়শ্চারাইজার ব্যবহারের ফলে ত্বক শুষ্ক হবে না এবং আপনার ত্বক কোমল এবং উজ্জল থাকবে।