Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

এ সব কাজে কখনও ডিমের সাহায্য নিয়েছেন? এ বার মুশকিল আসান করবে এই খাদ্য

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৩ জুলাই ২০১৯ ১২:১১
ডিমের কিছু ব্যবহার জানলে অবাক হতে পারেন! —ছবি: আইস্টক।

ডিমের কিছু ব্যবহার জানলে অবাক হতে পারেন! —ছবি: আইস্টক।

খাওয়াদাওয়া থেকে রূপচর্চায় ব্যবহার— ডিমের প্রয়োজনীয়তা কমবেশি সব গৃহস্থ বাড়িতেই রয়েছে। সেদ্ধ থেকে ডালনার কদরও প্রায় সব হেঁশেলে। তবে ডিম কেবল খাওয়া বা রূপচর্চাতেই কাজে লাগে এমন ভাবলে মস্ত ভুল করবেন।

পুষ্টি মেটাতেও ডিমের চাহিদা তুঙ্গে। কম খরচে প্রোটিনের এমন সম্ভার আর কোনও খাবারে সে ভাবে নেই। কিন্তু জানেন কি, এই ডিম দিয়েই আপনি সারিয়ে ফেলতে পারেন কাটাছেঁড়ার দাগ কিংবা ঝকঝকে করে ফেলতে পারেন গয়নাগাটি!

Advertisement

ডিমের এই অজানা ব্যবহারগুলি জানলে রোজনামচায় কাজে লাগাতে পারেন আপনিও। রইল ডিমের রকমারি কার্যকারিতার হদিশ।

আরও পড়ুন: কিছুতেই চুল বাড়ে না? এই ছয় উপায়েই মজবুত ও লম্বা হবে এ বার

কন্ডিশনার: হঠাৎ কন্ডিশনার ফুরিয়ে গিয়েছে? চিন্তার কারণ নেই। অলিভ অয়েল আর ডিমের কুসুম একসঙ্গে মিশিয়ে শ্যাম্পুর পর লাগিয়ে রাখুন চুলে। বাজারচলতি কন্ডিশনারের চেয়ে এই ঘরোয়া ব্যবহারে চুল ভাল হবে।

গাছের প্রয়োজন: ডিম সেদ্ধর পর সেই জল ও ডিমের খোলা গুঁড়িয়ে গাছের গোড়ায় দিন। ডিমের খোলা গাছের শরীরে ক্যালশিয়ামের জোগান বাড়াতে খুব কার্যকর। গাছকে নানা পতঙ্গের হাত থেকেও বাঁচায় ডিমের খোলা।



ডিমের কুসুম ডিঅক্সিডাইজের কাজ করতে সক্ষম।

গয়না পরিষ্কার: রুপোর গয়না দিন কয়েক পরলেই কালো হয়ে যাওয়ার ভয় থাকে। বাতাসের অক্সিজেনের প্রভাবেই এমনটা হয়। ডিম এই গয়নাগুলোকে পরিষ্কার করে ঝকঝকে করে দিতে পারে সহজেই। ডিম অনেক ক্ষণ ধরে খুব শক্ত করে সেদ্ধ করে নিতে হবে এ ক্ষেত্রে। এর পর খোসা ছাড়িয়ে দু’ভাগ করে কুসুম ছাড়িয়ে নিন। এ বার সেই কুসুম একটি ঢাকনাযুক্ত পাত্রে রেখে হাত দিয়ে ঝুরঝুরো করে গুঁড়িয়ে নিন। এ বার তাতে হালকা কোনও পেপার টাওয়েল বিছিয়ে তার উপর রাখুন রুপোর গয়নাগুলো। পাত্রের মুখের চার পাশে ময়দার প্রলেপ লেপে বায়ুনিরুদ্ধ করে বন্ধ করে দিন। দু’দিন পর সেই গয়নাগুলো বার করলেই দেখবেন, কালো ভাব একেবারে উধাও। ডি-অক্সিডাইজার হিসেবে ডিমের এই ব্যবহার নানা জুয়েলারিতেও করা হয়।

আরও পড়ুন: চোখের জল কমলে ক্ষতি

রক্ত বন্ধ করতে: বনভোজনে গিয়ে বা বাড়ির মধ্যেই কোনও দুর্ঘটনাবশত কেটে গেলে দেখা যায় অনেক সময় রক্ত বন্ধ হতে চায় না। এ সময় ডিমকে কাজে লাগান। এমনিতে বাড়িতে ডিম মজুত থাকে প্রায় সকলেরই। কিংবা কোথাও বনভোজনে গেলে ডিম সেদ্ধ সঙ্গে নিয়ে যাওয়া আমাদের বরাবরের অভ্যাস। সেদ্ধ ডিমের খোলা ও সাদা অংশের মাঝে যা পাতলা খোসা থাকে তা ছাড়িয়ে নিন। সেই খোসা ক্ষতস্থানে চেপে ধরে থাকলেই রক্ত বন্ধ হবে দ্রুত। এমনকি দ্রুত ক্ষতের দাগ মেলাতেও এটি বেশ কার্যকর।

আরও পড়ুন

Advertisement