Advertisement
১৯ জুলাই ২০২৪
Youth Family

৭ বছরে ৯ সন্তানের মা, আসছে আরও এক সদস্য, এই পরিবারের খাবারের খরচ কত জানেন?

২০১৩ সালে আমান্ডা এবং তাঁর স্বামী ক্রিস বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তাঁরা জমজ চার সন্তানের অভিভাবক হয়েছেন ২০১৭ সালে। তার পরেও হাল ছাড়েননি তাঁরা।

আমান্ডা ও ক্রিসের পরিবার।

আমান্ডা ও ক্রিসের পরিবার। ছবি- সংগৃহীত

সংবাদ সংস্থা
নিউ ইয়র্ক শেষ আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০২২ ১৯:৫২
Share: Save:

বছর ২৯-এর আমান্ডা সেলার বড় পরিবার পছন্দ করেন। তাই এই বছর জন্ম দিতে চলেছেন তাঁর দশ নম্বর সন্তানের।

২০১৩ সালে আমান্ডা এবং তাঁর স্বামী ক্রিস বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন। তার পর থেকে দু’জনই পরিবারের সদস্য সংখ্যার উপর নজর দিয়েছেন। তাঁরা জমজ চার সন্তানের অভিভাবক হয়েছেন ২০১৭ সালে। তার পরেও হাল ছাড়েননি তাঁরা।

আমান্ডা সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন, ২০২১ সাল ছাড়া ২০১৩ থেকে ২০২০ সাল, টানা ৭ বছর কোন না সময়ে আমি অন্তঃস্বত্ত্বা ছিলাম। হয়তো এই দশতম সন্তানই আমাদের কনিষ্ঠ সন্তান।

এই পরিবারের জন্য মাসে আমান্ডা এবং তার পরিবারের প্রায় ১১০০ ডলার খরচ হয়। তা-ও কখনও কখনও সামাল দেওয়া মুশকিল হলে আরও ৪০০ ডলার যোগ করতে হয়। ভারতীয় মূল্যে যার পরিমাণ প্রায় ১ লক্ষ ২৩ হাজার টাকা।

আমান্ডা ও ক্রিসের সন্তানরা।

আমান্ডা ও ক্রিসের সন্তানরা। ছবি- সংগৃহীত

ক্রিসের আগের পক্ষের দুই সন্তান এবং আমান্ডার ও ক্রিসের সাত সন্তানের অভিভাবক হিসেবে দায়িত্ব পালন করা মুখের কথা নয়। আমান্ডা বলেছেন, “প্রতিদিন আমি ১৫ জনের খাবারের হিসেব করি। তার পর সেটাকেই দ্বিগুণ করে নিই। এই সব কিছু রাখার জন্য আমাদের বাড়ির তলায় একটি বড় ফ্রিজার আছে। অবশ্য রান্নাঘরেও ফ্রিজ আছে। আমার আরও একটি বাড়তি ঘর থাকলে খুব সুবিধে হত। কারণ, সেখানে আমি আরও একটি ফ্রিজ রাখতে পারতাম।”

এই পরিবারের সদস্য সংখ্যা নিয়ে খুশি আমান্ডা। কারণ, সন্তানদের বড় করার পাশাপাশি বাড়ির ছোট ছোট দায়িত্বও নিতে শিখিয়েছেন তিনি। আমান্ডা বলছেন, “মাঝে মধ্যে যে পুরো বিষয়টা ঘেঁটে যায় না, তা নয়। তবে সব বাড়িতেই তো খুঁটিনাটি লেগে থাকে। তার জন্য আমি আমার পরিবারকে ছাড়তে পারব না।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

family
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE