যে কোনও লেখায় ভূমিকার যেমন গুরুত্ব আছে, তেমনই বাড়ির জন্য নেমপ্লেট। একে তো কোনও অচেনা বাড়িতে গেলে তা খুঁজে বার করতে ভরসা রাখতে হয় এই নেমপ্লেটেই। তা ছাড়া এই একটি ফলকেই ধরা থাকে গৃহকর্তা বা কর্ত্রীর রুচির পরিচয়। 

 

খেয়াল রাখবেন

• সদর দরজায় বা তার লাগোয়া দেওয়ালেই রাখতে পারেন নেমপ্লেট। উপরের দিকে বা কোণের দিকে না রেখে বরং চোখের লেভেলেই রাখা ভাল। 

• ধাতু, কাঠ, কাচ, প্লাইউড ইত্যাদি বিভিন্ন ধরনের মেটেরিয়ালের নেমপ্লেট পাওয়া যায়। আপনার বাড়ির দরজা কেমন, তার উপরে নির্ভর করছে আপনি কী ধরনের ও কী রঙের নেমপ্লেট কিনবেন। শুধু খেয়াল রাখবেন, তা যেন দূর থেকেও দৃশ্যমান হয়। 

• অনেকেই নিজের পরিচয় গোপন রাখতে চান। সে ক্ষেত্রে নিজের নাম না রেখে, ‘ওয়েলকাম’ বা ‘হোম’ লেখা নামফলক রাখতে পারেন। আবার আপনার বাড়ির বা ফ্ল্যাটের একটা নাম দিয়ে তা রাখতে পারেন নেমপ্লেটে। এতে বেশ পুরনো দিনের বাড়ির একটা প্রতিফলনও থাকবে।

• নেমপ্লেটের উপরে আলো দিতে পারলে ভাল হয়। অনেক করিডোরে কোনও একটা জায়গায় আলো থাকে। ফ্ল্যাটের দরজায় ছায়া পড়লে নেমপ্লেট ঢাকা পড়ে যায়। তাই দরজার উপরে ছোট আলো বা নেমপ্লেটের চারপাশে স্ট্রিং লাইট লাগাতে পারেন।

• বাড়িতে ঢোকার মুখে বাগান থাকলে, সেখানে প্ল্যাকার্ডের মতো করে নেমপ্লেট বসাতে পারেন।

নেমপ্লেট যেমনই হোক না কেন, তার উপরে ধুলোর স্তর কিন্তু মোটেই ভাল দেখায় না। তাই নিয়মিত নেমপ্লেট পরিষ্কার রাখা জরুরি।