Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

বাইরে সংক্রমণের ভয়, ছাদে হাঁটলে কতটা কাজ হবে?

হাঁটাচলা করলে, বিশেষত দ্রুত গতিতে হাঁটতে পারলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে, বলছেন ফিটনেস বিশেষজ্ঞরা।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ২৭ জুন ২০২০ ১৩:২৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

Popup Close

আতঙ্কের নাম কোভিড ১৯। বাইরে বেরোলেই সংক্রমণের আশঙ্কা। এ দিকে বাড়িতে রোজ একটানা বসে থাকলেও মুশকিল। ‘গল্প হলেও সত্যি’র ছায়া দেবীর মতো আপনিও বলে উঠবেন, “বসে বসে গেঁটে বাত ধরে গেল।” তাই নিজেকে সুস্থ রাখতে হাঁটা-চলা করতেই হবে। বাড়াতে হবে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা। কিন্তু পার্কে কিংবা রাস্তায় একটানা হেঁটে যে ফল পাওয়া যেত, ছাদে কিংবা এক ফালি বারান্দায় বার বার হেঁটে সেই ফল মিলবে কি?

হাঁটাচলা করলে, বিশেষত দ্রুত গতিতে হাঁটতে পারলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়বে, বলছেন ফিটনেস বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু সবার ক্ষেত্রে তো একই নিয়ম খাটবে না। তা হলে?

তবে একটানা লম্বা হাঁটার বদলে স্টপ-স্টার্ট পদ্ধতি অনেক বেশি জরুরি। এমনকি সেটা ছাদ কিংবা ফ্ল্যাটের স্পেস হতেই পারে। এমনই বক্তব্য ফিটনেস বিশেষজ্ঞ চিন্ময় রায়ের। তাঁর মত, “হালকা গতিতে অনেক ক্ষণ রাস্তায় হাঁটাচলা করলে লাভ নেই। বরং এক মিনিট জোরে তার পর তিরিশ সেকেন্ড আস্তে হাঁটলে, সেটা ছাদ হোক কিংবা বারান্দা, তা অনেক বেশি ফলপ্রসূ। কিংবা দু’মিনিট অত্যন্ত দ্রুত হেঁটে তিরিশ সেকেন্ড বিশ্রাম, এই পদ্ধতি অবলম্বন করে হাঁটতে পারেন। একটানা পার্কে কিংবা রাস্তায় ৪০ মিনিট হাঁটার বদলে এটি অনেক বেশি কাজে দেবে।”

Advertisement

ছাদে কিংবা ঘরে হাঁটার ক্ষেত্রে যা মনে রাখতে হবে-

• টানা অনেক ক্ষণ হাঁটা বয়স্কদের ক্ষেত্রে নৈব নৈব চ। কারণ হাঁটু তে ব্যথা হতে পারে।

• ক্রনিক হার্ট ডিজিজ না থাকলে যে কোনও বয়সের যে কেউ জোরে হাঁটতেই পারেন।

• কিন্তু তা করতে হবে স্টপ স্টার্ট পদ্ধতি মেনে অর্থাৎ দ্রুত ঘাম ঝরিয়ে এক মিনিট হেঁটে আবার তিরিশ সেকেন্ড ধীর গতিতে হাঁটুন। এ ভাবে বাড়ির ছাদে রোজ মিনিট ১৫ হাঁটলেও তা কাজে দেবে।

আরও পড়ুন: সন্তান জ্বরে ভুগছে? করোনা পরিস্থিতিতে কী করবেন

আরও পড়ুন: কলকাতায় করোনার নয়া উপসর্গের সন্ধান: চর্মরোগ, ডায়ারিয়াতেও সতর্ক হোন

• হাঁটা যে কোনও ভাবে, যে কোনও জায়গায় হতে পারে। রাস্তার বদলে ছাদে বিরতি নিয়ে স্টপ স্টার্ট পদ্ধতি মেনে হাঁটা অনেক বেশি কার্যকর।

• তবে শুধু হাঁটাই নয়, এর সঙ্গে আরও একটা প্রশ্ন চিহ্ন রয়েই যাচ্ছে। আবাসনের ছাদ হলে সেখানে তো অন্যরাও উঠছেন। ফলে জমায়েতের সম্ভাবনা। সে ক্ষেত্রে কি মাস্ক পরতে হবে?

• হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ দেবব্রত রায় বলছেন, যে কোনও এক্সারসাইজের মূল শর্ত ঘাম ঝরাতে হবে। রাস্তায় না বেরিয়ে ছাদে হাঁটলেই সেই ফল মিলবে। কিংবা বাড়িতে কায়িক পরিশ্রমের কাজ করলেও।

আরও পড়ুন: জ্বর মানেই করোনা আতঙ্ক? বাড়িতে এই সব মেডিক্যাল কিট না রাখলে বিপদ

• কিন্তু মাস্ক পরে দ্রুত গতিতে ছাদে হাঁটা? চিকিৎসকের মত, “এক্কেবারে না। দমবন্ধ হয়ে আসছে এমন একটা অনুভূতি তৈরি হবে এবং এটি শরীরের জন্যে ক্ষতিকর।”

মেডিসিন বিশেষজ্ঞ রামিজ ইসলাম এই প্রসঙ্গে বলেন, “এই নিয়ে বেশ কিছু গবেষণাপত্র রয়েছে। মাস্ক পরে দ্রুত গতিতে হাঁটলে একটা মাইক্রো ক্লাইমেট তৈরি হয়। এয়ার-ওয়ে অবস্ট্রাকশন অর্থাৎ বাতাস চলাচলে বাধা তৈরি হবে। ফলে হৃদস্পন্দনের হার বেড়ে যেতে পারে।” তিনি বলেন, ক্রনিক হার্ট ডিজিজ, ক্রনিক লাং ডিজিজ, সিওপিডি, হাঁপানির সমস্যা রয়েছে এমন মানুষ এবং বয়স্কদের ক্ষেত্রে মাস্ক পরে দ্রুত গতিতে হাঁটা একেবারেই উচিত নয়।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement