• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বাহুমূলের মেদ স্লিভলেস পরতে দিচ্ছে না? এ সব উপায়ে ঝরিয়ে ফেলুন সহজে

arm fat
হাতের মেদ ধরাতে বরসা রাখুন ওয়েট ট্রেনিংয়ে। ছবি: শাটারস্টক।

Advertisement

মেদহীন ছিপছিপে শরীরের পথে বেমানান হয়ে দাঁড়াতে পারে বাহুমূলের অবাঞ্ছিত চর্বি। শুধু স্লিভলেস পোশাক পরার সৌন্দর্যতেই তা বাধা হয়ে দাঁড়ায় এমন নয়, শরীরকে সুঠাম ও সুগঠিত হওয়ার পথেও বাধা দেয়। মহিলাদের মধ্যে অনেকেরই ধারণা রয়েছে, ওয়েট ট্রেনিং করলেই পুরুষালি গড়ন চলে আসতে পারে। এই ধারণা একেবারেই ভুল, জানালেন ফিটনেস বিশেষজ্ঞ সুকোমল সেন।

‘‘আমরা ভুলে যাই, শরীরকে ছিপছিপে করতে গেলে কেবল পেট ও কোমরের অংশের মেদের দিকে লক্ষ্য রাখলেই হয় না। শরীরের সার্বিক মেদহ্রাসের দিকেই মন দিতে হয়। আর তা করতে গেলে কেবল ডায়েট বা হাঁটাহাঁটি শেষ কথা নয়। ওয়েট ট্রেনিংও প্রয়োজন। বাইরে থেকে কোনও স্টেরয়েড খাবার বা ইঞ্জেকশন না নেওয়া অবধি বাইসেপ, ট্রাইসেপ-সহ পেশিবহুল চেহারা হওয়া সম্ভব নয়। আর ওয়েট ট্রেনিংয়েরও প্রকারগত ভেদ আছে। ওজন কমাতে ওয়েট ট্রেনিং আর পেশি তৈরির ওয়েট ট্রেনিংয়ের ধরনও আলাদা।’’

তাই হাত তথা বাহুমূলের মেদ কমাতে চাইলে এখন থেকেই কিছু ওয়েট ট্রেনিং করুন। তবে শরীরচর্চায় অভ্যস্ত না হলে শুরুর দিকে অবশ্যই কোনও বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। সুকোমল সেনের মতে, জিমে না গিয়ে বাড়িতেও শুরু করতে পারেন এমন ওয়েট এক্সারসাইজ। দু’টি এক লিটারের জল ভরা বোতলই সেখানে ওজনের জোগান দেবে। রইল টিপ‌্স।

আরও পড়ুন: ডিভোর্সের ধাক্কা? কী ভাবে সামলাবেন নিজেকে...

ডাম্বেলের বদলে জল ভর্তি বোতল নিয়েও অভ্যাস করতে পারেন ব্যায়াম।

ট্রাইসেপ চপস: জল ভর্তি এক লিটারের একটি বোতলের দু’দিক দু’হাতে ধরুন এ বার সেই অবস্থায় মাথার উপর হাত দুটো তুলে তাকে ঘাড়ের পিছনে নামিয়ে আনুন। এ বার এই অবস্থাতেই হাতটা মাথার উপর তুলুন। ফের ঘাড়ের পিছনে নিয়ে যান। এই ভাবে কুড়ি বার করুন। কুড়িটিতে একটি সেট হয়। দিনে অন্তত তিনটি সেট অভ্যাস করুন।

ডায়মন্ড লেগ পুশ আপ: হাঁটু ভাঁজ করে বসে পুশ আপের মতো করে হাত দু’টো ম্যাটের উপর রাখুন। হাতের কনুই যেন না ভাঙে। হাঁটু ঠেকে থাকবে ম্যাটে। এ বার পুশ আপ করুন কুড়ি বার। চেষ্টা করুন তিন সেট করতে।

আরও পড়ুন: ডিম খেতে ভালবাসেন? প্রতি দিন ক’টা করে খেলে কোনও ক্ষতি হবে না জানেন?

ওভারহেড চপস: পা সোজা। হাত দু’টি পায়ের সঙ্গে সমান্তরাল। দু’ হাতেই একটা করে এক লিটারের বোতল ধরে থাকুন। হাত ভাঁজ করে ওজন তুলুন কাঁধ পর্যন্ত। এ বার খানিক থেমে আবার তা তুলুন মাথার উপরে। হাত মাথার উপর টানটান থাকবে। কয়েক সেকেণ্ড রেখে ফিরিয়ে আনুন কাঁধে। আবার কাঁধ থেকে উঠবে মাথায়। এই ভাবে কুড়ি বার করুন। তিন সেট যথেষ্ট। তবে অভ্যাস হয়ে এলে ওজন ধীরে ধীরে বাড়াতে পারেন, তবে অবশ্যই প্রশিক্ষকের পরামর্শ মেনে। 

সাইড চপস: একটি জলের বোতল দু’হাতে ধরে হাত দু’টো বুকের সোজাসুজি টান করুন। এ বার সেই অবস্থায় এক বার ডান দিতে যত দূর পারেন, এক বার বাঁ দিকে যত দূর পারেন বোতল-সহ হাত সরান। দু’দিকে দশ বার করে মোট কুড়ি বার করে এক সেট হয়। দু’ সেট অভ্যাস করুন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন