Advertisement
২১ সেপ্টেম্বর ২০২৩
Family Planning

৬০ সন্তানের বাবা হয়েও সন্তুষ্ট নন, আরও সন্তান পেতে আবার বিয়ে করতে চান পাকিস্তানি প্রৌঢ়

৬০ বার বাবা হওয়ার পরেও থামাতে চান না পাকিস্তানের এক প্রৌঢ়। পাকিস্তানের কোয়েটা অঞ্চলের বাসিন্দা ৫০ বছর বয়সি ওই প্রৌঢ়ের নাম সর্দার জান মোহাম্মদ খান খিলজি। চতুর্থ বিয়েও করতে চান তিনি।

ইতিমধ্যেই তিন বার বিয়ে করেছেন সর্দার জান, কিছু দিন আগেই এক পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন তাঁর এক স্ত্রী

ইতিমধ্যেই তিন বার বিয়ে করেছেন সর্দার জান, কিছু দিন আগেই এক পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন তাঁর এক স্ত্রী ছবি: সংগৃহীত

সংবাদ সংস্থা
লাহৌর শেষ আপডেট: ০৫ জানুয়ারি ২০২৩ ১০:২৫
Share: Save:

সম্প্রতি ষষ্ঠদশ সন্তানের বাবা হয়েছেন, তবু থামতে চান না এখনই, আরও বিয়ে করে আরও সন্তানের জন্ম দিতে চান পাকিস্তানের এক প্রৌঢ়। পাকিস্তানের কোয়েটা অঞ্চলের বাসিন্দা ৫০ বছর বয়সি ওই প্রৌঢ়ের নাম সর্দার জান মোহাম্মদ খান খিলজি।

ইতিমধ্যেই তিন বার বিয়ে করেছেন সর্দার জান। কিছু দিন আগেই এক পুত্রসন্তানের জন্ম দিয়েছেন তাঁর এক স্ত্রী। সদ্যোজাত পুত্রের নাম রেখেছেন হাজি খুশল খান। কিন্তু এত বার বাবা হওয়ার পরেও থামতে চান না সর্দার জান। সংবাদ সংস্থা বিবিসিকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে পেশায় চিকিৎসক সর্দার জানিয়েছেন, খুশলের খেলার সঙ্গী প্রয়োজন। তাই তিনি তাকে আরও ভাই-বোন দিতে চান।

কোয়েটার ইস্টার্ন বাইপাসের কাছে বাড়ি সর্দারের। সেখানেই প্রতিবেশীদের নিজের জন্য পাত্রী দেখার অনুরোধ করেছেন সর্দার। তবে আবার বিয়ে করার সাধ থাকলেও প্রৌঢ়ের দাবি, তাঁর বর্তমান স্ত্রীরাও আবার মা হতে চান। ভবিষ্যতে পুত্রসন্তানের বদলে কন্যাসন্তান চান বলেও জানিয়েছেন তিনি। প্রৌঢ়ের ইচ্ছা, সব সন্তান-সন্ততি ও স্ত্রী একই বাড়িতেই থাকবেন। তাই নিজের বসতবাড়ি আরও বড় করার ইচ্ছাও রয়েছে তাঁর। তবে সর্দারের একটাই আক্ষেপ, এত বড় পরিবার নিয়ে যাতায়াত করা খুবই ঝক্কির। তাই পাকিস্তান প্রশাসনের কাছে তিনি অনুরোধ করেছেন, যেন তাঁর পরিবারের জন্য একটি আলাদা বাসের বন্দোবস্ত করে দেওয়া হয়।

যাতায়াতের সমস্যা ছাড়াও পাকিস্তানের অর্থনৈতিক অবস্থাও চিন্তার কারণ হতে পারে সর্দারের। তিনি নিজেই জানিয়েছেন, ক্লিনিক আর আগের মতো চলছে না। বিশেষ করে বিগত তিন বছর ধরে সংসারের খরচ সামলানো বেশ মুশকিল হয়ে উঠেছে। তবে তাঁর সাফ কথা, যতই কষ্ট হোক, তিনি ঘাবড়াচ্ছেন না। জানিয়েছেন, গোটা সংসারের খরচ বহন করতে যথাসাধ্য পরিশ্রম করবেন তিনি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE