Advertisement
০৮ ডিসেম্বর ২০২৩
Pet Friendly Cinema

পাশে আদরের পোষ্যকে নিয়েই বড় পর্দায় ছবি দেখবেন! কোন দেশে খুলল নতুন ধরনের সিনেমা হল?

অনেক বাড়িতেই পোষ্য থাকে এখন। তাদের ছেড়ে এমনিতেই কাজে বেরোতে হয় অনেক ক্ষণের জন্য। তার পর আবার তাদের একা রেখে নিজেদের বিনোদনের জন্য বেরোনো সকলের পক্ষে সম্ভব হয় না। তাই নতুন ধরনের সিনেমা হল তৈরি হয়েছে।

Image of pet friendly cinema hall

পোষ্যকে নিয়ে এমন ভাবেই বড়পর্দায় ছবি দেখা উপভোগ করতে পারেন। ছবি: এএফটি

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
তাইল্যান্ড শেষ আপডেট: ১৪ জুন ২০২৩ ১২:৫৯
Share: Save:

বাড়িতে থাকলে সারা ক্ষণ গায়ে ঘেঁষে থাকে। কাজের জন্য যেটুকু সময় বাইরে থাকতে হয়, সেই সময়েও মন পড়ে থাকে পোষ্যটির দিকে। বাড়ির চারপেয়ে সদস্যটিকে একলা রেখে দূরে কোথাও যেতে মন চায় না অনেকেরই। সপ্তাহান্তে ছুটির দিন, তাকে ছেড়ে কিছু ক্ষণের জন্য সিনেমা দেখতে যেতেও দু’বার ভাবতে হয়। সেই সব পোষ্যের অভিভাবকদের কথা ভেবে তাইল্যান্ডে চালু হল সেই দেশের প্রথম ‘পেট ফ্রেন্ডলি সিনেমা’।

ব্যাঙ্কক শহরের অদূরেই ‘মেগা বঙ্গনা শপিং মল’-এ মেজর সিনেপ্লেক্স। সিনেমা হলের উদ্বোধন উপলক্ষে এক ডজনেরও বেশি চারপেয়েকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছিল। চারপেয়েরা যাতে কোনও ভাবে প্রেক্ষাগৃহ নোংরা না করে, তার জন্য সকলের নিম্নাঙ্গে ছিল বিশেষ ডায়াপার। পোষ্যদের জন্য সাধারণ আসনের উপর বিশেষ ব্যাগেরও ব্যবস্থাও করা হয়েছিল। সংস্থার পক্ষ থেকে নারুতে জিয়েন্সনং এক সাক্ষাৎকারে জানান, চড়া আলো এবং আওয়াজে পোষ্যদের সমস্যা হতে পারে। তাই সেই সব কথা মাথায় রেখে আলোর ঔজ্জ্বল্য এবং শব্দের সীমাও নিয়ন্ত্রণ করে রাখা হয়েছে। তিনি বলেন, “ব্যাঙ্কক পোষ্যদের জন্য খুব একটা সুরক্ষিত নয়। তা ছাড়া অনেক পোষ্যই মানুষ ঘেঁষা হয়। অনেকটা সময় মানুষকে না দেখতে পেলে তাদের মধ্যেও উদ্বেগের পরিমাণ বেড়ে যায়।”

এই উদ্যোগে তাইল্যান্ডের বেশির ভাগ পোষ্যের মালিক খুশি হলেও অন্য এক অভিভাবক জানিয়েছেন, “এ ভাবে ৩-৪ ঘণ্টা খাঁচার মধ্যে আটকে থেকে পোষ্যরা কতটা আনন্দ পাবে, সে বিষয়ে যথেষ্ট সন্দেহ রয়েছে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE