Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
sunscreen

সানস্ক্রিন মাখলে ঘেমে যান? এ ভাবে ব্যবহার করলেই মিটবে ঘামের সমস্যা

অনেকেরই সানস্ক্রিনের প্রভাবে তীব্র ঘাম হয়। তাই ত্বক পুড়ে যাওয়ার ভয় থাকলেও সানস্ক্রিন মাখতে চান না কেউ কেউ। কী ভাবে মাখলে ঘামের সমস্যা থেকে মুক্তি পাবেন জানেন?

সানস্ক্রিন ব্যবহারে অবহেলা ত্বকের ক্ষতি করে। ছবি: শাটারস্টক।

সানস্ক্রিন ব্যবহারে অবহেলা ত্বকের ক্ষতি করে। ছবি: শাটারস্টক।

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০১৮ ১৩:১২
Share: Save:

ঋতু বিশেষে ত্বকের যত্নে বেশ কিছু পরিবর্তন আমরা করেই থাকি। আবহাওয়ার সঙ্গে তাল মিলিয়ে ত্বককে ভাল রাখতে গেলে এ ছাড়া কোনও উপায় থাকে না। তবে ত্বকের প্রাথমিক যত্নের যে ক’টি উপায় সারা বছরই কম-বেশি এক থাকে, তার অন্যতম একটি সানস্ক্রিন ব্যবহার। এর সান প্রিভেনটিভ ফ্যাক্টর বা এসপিএফ সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মি থেকে আমাদের ত্বককে রক্ষা করে।

Advertisement

রূপবিশেষজ্ঞদের মতে, বাড়িতে থাকুন বা বাইরে, দিনের বেলা সানস্ক্রিন ব্যবহার করা খুব প্রয়োজন। মেঘলা আকাশ থাকলেও সানস্ক্রিন মাখারই পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। কিন্তু এই সানস্ক্রিন নিয়ে সবচেয়ে বড় সমস্যা হল ঘাম। অনেকেরই সানস্ক্রিনের প্রভাবে তীব্র ঘাম হয়। তাই ত্বক পুড়ে যাওয়ার ভয় থাকলেও সানস্ক্রিন মাখতে চান না কেউ কেউ। আবার অনেকে ঘামের হাত থেকে পরিত্রাণ পেতে বারে বারে নানা সংস্থার তৈরি সানস্ক্রিন ব্যবহার করেন। তাতেও বিশেষ ফল হয় না।

তবে দু’টি ছোট বিষয় জানা থাকলে এই ঘামের হাত থেকে বাঁচতে পারেন আপনিও। বার বার সংস্থা না বদলে আপনার ত্বকে সমস্যা তৈরি করে না এমন কোনও সানস্ক্রিনেই আস্থা রাখুন, কেবল মেনে চলুন দু’টি নিয়ম। তাতে ঘামের হাত থেকে যেমন রক্ষা পাবেন, তেমনই সূর্যের আলোয় পুড়বে না ত্বক।

আরও পড়ুন: শিশুর মুখে দুধের বোতল গুঁজে নিশ্চিন্তে থাকেন? কী মারাত্মক ক্ষতি করছেন জানেন?

Advertisement

রূপবিশেষজ্ঞদের মতে, প্রথমেই সানস্ক্রিন কেনার সময় নির্দিষ্ট এসপিএফ কত তা দেখে নিন, আমাদের ধারণা, বেশি এসপিএফ মানেই বোধ হয় বেশি সূর্যালোক রোধ করা। এই ধারণা ঠিক নয়। সাধারণত, নির্দিষ্ট অঞ্চলের আবহাওয়ার উপর নির্ভর করে এসপিএফ বাছা উচিত। আমাদের রাজ্যের সার্বিক যা তাপমাত্রা, তাতে এসপিএফ ৩০-৩৫ যথেষ্ট। এ বার অবলম্বন করুন ছোট একটি কৌশল। সানস্ক্রিন মাখার আগে অবশ্যই তাতে সামান্য জল মিশিয়ে নিন। সানস্ক্রিনের সঙ্গে জলের এই মিশ্রণ ভাল করে মেখে নিন শরীরে।

আরও পড়ুন: নামমাত্র খরচে এই ভাবে সারা শীতকাল দূরে রাখুন পা ফাটাকে

জলের প্রভাবে শরীরের রোমকূপকে ঠান্ডা রাখবে, আবার সামস্ক্রিনের মধ্যে থাকা রাসায়নিকের ঘনত্বকেও জল অনেকটা লঘু করে দেবে। ফলে ঘাম কমে যাবে অনেকটাই। কাজেই ঘামের ভয়ে সানস্ক্রিন মাখা বন্ধ করার কোনও কারণই নেই! বরং এই উপায়ে সানস্ক্রিন মেখে সূর্যালোক থেকে দূরে রাখুন ত্বক।

ইতিহাসের পাতায় আজকের তারিখ, দেখতে ক্লিক করুন — ফিরে দেখা এই দিন

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.