Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

Lipstick: বন্ধুর পার্সে নতুন লিপস্টিক দেখেই টুক করে লাগিয়ে নিলেন? কাজটা ঠিক করলেন কি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০১ সেপ্টেম্বর ২০২১ ১৯:২৫
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

অফিস থেকে বিয়েবাড়ি যাবেন। শাড়ির সঙ্গে বেশি মানাচ্ছে বন্ধুর লিপস্টিকটিই। সঙ্গে সঙ্গে সেটিই ঠোঁটে লাগালেন। সকলে সাজ দেখে প্রশংসা করলেন। ভাল ছবি উঠল। মন ভাল হল। কিন্তু স্বাস্থ্যের জন্য ঠিক হল কি কাজটি?

হল না। অন্যের মেকআপ ব্যবহার করলে নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা হতে পারে। তা জানা আছে কি?

অন্যের খাবার খাচ্ছেন না। অন্যের মাস্ক ব্যবহার করছেন না। কিন্তু মেকআপ ব্যবহার করছেন। আর তার মাধ্যমেই যে কত জীবাণু ছড়াচ্ছে, খেয়ালও করছেন না। চর্মরোগ চিকিৎসকেরা সতর্ক করছেন বিষয়টি নিয়ে। কারণ মহিলাদের অনেক ধরনের চামড়ার রোগই এ ভাবে ছড়ায় বলে বক্তব্য চিকিৎসকদের।

Advertisement
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।


বিশেষ করে লিপস্টিক ব্যবহারের বিষয়ে আরও সাবধান হতে হবে। অনেকেই শরীরে এইচএসভি-১ নামক একটি ভাইরাস বহন করে। যা ওরাল হার্পিস নামে আরও পরিচিত। হয়তো আপনার বন্ধু জানেনও না যে তার শরীরের সেই ভাইরাস রয়েছে। কারণ, তা থেকে কোনও ধরনের অসুস্থতার শিকার তাঁকে হতে হয়নি। কিন্তু তার মানেই এমন নয় যে আপনিও সুরক্ষিত। বন্ধুর শরীরের সেই ভাইরাস লিপস্টিকের মাধ্যমে চলে যেতে পারে আপনার শরীরেও। তার থেকে ঠোঁট, মুখ, জিভে ছড়াতে পারে সংক্রমণ।

এই সংমক্রমণের কারণে ঠোঁটে ফোলা ভাব, ব্যথা, মাড়ি ও জিভে জ্বালার মতো সমস্যা দেখা যায়। সংক্রমণ মাত্রা ছাড়ালে অনেকেরই জ্বরও আসে। এই সংক্রমণ থেকে মুক্তি পেতে কেটে যেতে পারে ২-৩ সপ্তাহ।

ফলে পরের বার অন্যের লিপস্টিক ব্যবহার করার আগে সাবধান। এক দিনের সাজই ডেকে আনতে পারে ভোগান্তি।

আরও পড়ুন

Advertisement