ঝড় বৃষ্টির দাপটে প্যান্ডেল ভেঙে মৃত্যু হল ১৪ জনের। আহত আরও ৫০। রবিবার রাজস্থানের বারমেরে এই দুর্ঘটনা হয়। আহতদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাঁদের মধ্যে অনেকের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রাজস্থানে জয়পুর থেকে প্রায় ৫০০ কিলোমিটার দূরে বারমেরে একটি স্কুলের মাঠে রাম কথার অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। তৈরি করা হয় আস্থায়ী ছাউনি। কয়েক হাজার মানুষ জড়ো হয়েছিলেন অনুষ্ঠানে অংশ নিতে। সেই সময় হঠাত্ই ঝড় বৃষ্টি শুরু হয়। জোরে ঝড় শুরু হওয়ায় রাম কথা থামিয়ে দিতে হয়। মাইকে অনুরোধ করা হয় সবাই যাতে নিরাপদে তাঁদের বাড়ি ফিরে যান। এর মধ্যেই হঠাত্ হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে ছাউনিটি। বহু মানুষ চাপা পড়ে যান তার তলায়।

দুর্ঘটনার খবর পেয়েই জেলা প্রশাসন ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। দুর্ঘটনাগ্রস্তদের উদ্ধার করে জেলার হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। মৃতের সংখ্যা বাড়তে  পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আহতদের দ্রুত আরোগ্য কামনা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। প্রধানমন্ত্রীর দফতরের টুইটার হ্যান্ডলে শোক প্রকাশ করে ঘটনাটিকে দুর্ভাগ্যজনক বলা হয়েছে।

 

আরও পড়ুন : সারা রাত মর্গে কাটিয়ে সকালে বেঁচে ফিরলেন ‘মৃত’ কাশীরাম!

আরও পড়ুন : মন ভাল করা ভিডিয়ো: মুরগির বাচ্চাদের সঙ্গে খেলছে কুকুর ছানা

রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী অশোক গহলৌত স্থানীয় প্রশাসনকে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন। সেই সঙ্গে আহতদের চিকিত্সায় যাতে কোনও সমস্যা না হয় তার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ করতে বলেছেন। সমবেদনা জানিয়েছেন রাজস্থানের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বিজেপি নেত্রী বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়া। তিনি বিজেপি কর্মীদের দুর্ঘটনাগ্রস্ত ব্যক্তিদের পরিবারের পাশে দাঁড়ানোর আবেদন করেছেন। নিহত ও আহতদের আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়ার দাবিও তুলেছেন বসুন্ধরা রাজে।