• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

‘পেঁয়াজ খান না বলেছেন, উনি কি অ্যাভোকাডো খান?’ নির্মলাকে কটাক্ষ চিদম্বরমের

chidambaram
প্রাক্তন অর্থমন্ত্রী পি চিদম্বরম। সংসদ ভবনের সামনে, বৃহস্পতিবার। ছবি- পিটিআই।

পেঁয়াজ খান না, উনিই জানিয়েছেন। অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমন কি তা হলে অ্যাভোকাডো ফল খান?

জেল থেকে বেরনোর পর বৃহস্পতিবারই প্রথম সংসদে গিয়ে এই কটাক্ষ করলেন রাজ্যসভা সদস্য কংগ্রেস নেতা পি চিদম্বরম।

বুধবার সংসদে পেঁয়াজের অস্বাভাবিক দাম-বৃদ্ধি নিয়ে বিতর্কের সময় অর্থমন্ত্রী জানান, ফলন খুব কম হয়েছে বলে মিশর থেকে পেঁয়াজ আমদানির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তখন এক বিরোধী সাংসদ তাঁকে প্রশ্ন করেন, ‘‘আপনি কি মিশরের পেঁয়াজ খান?’’ তারই জবাবে নির্মলা বলেন, ‘‘আমি পেঁয়াজ, রসুন খাই না বললেই চলে। তাই আমাকে নিয়ে উদ্বিগ্ন হবেন না। আমি যে পরিবার থেকে এসেছি, সেখানে পেঁয়াজের ততটা চল নেই।’’

এর পরেই বিরোধী সাংসদরা তাঁকে ‘মারি আঁতোয়ানেত’ বলে সম্বোধন করতে থাকেন। ফ্রান্সে রাজা ষোড়শ লুইয়ের জমানায় যখন ভয়ঙ্কর খাদ্য সঙ্কট চলছে, তখন রানি মারি আঁতোয়ানেত প্রজাদের রুটির পরিবর্তে কেক খেয়ে থাকতে বলেছিলেন।

আরও পড়ুন- আমার বিরুদ্ধে একটি চার্জও গঠন করা যায়নি: তিহাড় জেলে থেকে বেরিয়ে মুখ খুললেন পি চিদম্বরম

আরও পড়ুন- মন্ত্রিসভায় ছাড়পত্র পেলেও সংসদে কবে পেশ হবে নাগরিকত্ব বিল তা নিয়ে নাটক জারি​

এ দিন তাঁর টুইটে চিদম্বরম-পুত্র লোকসভা সদস্য কার্তিও অর্থমন্ত্রীকে ‘আমাদের মারি আঁতোয়ানেত’ বলে কটাক্ষ করেছেন।

সংসদে যাওয়ার আগে এআইসিসি দফতের এক সাংবাদিক সম্মেলনে চিদম্বরম দেশের বেহাল অর্থনীতি নিয়ে তোপ দাগেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর বিরুদ্ধেও। বলেন, ‘‘অর্থনীতি নিয়ে প্রদানমন্ত্রী মুখে কুলুপ এঁটে থাকেন। সব ছেড়ে দিয়েছেন মন্ত্রীদের উপর, যাঁরা সব সময় মিথ্যে বলে চলেছেন। বুজরুকি দিয়ে চলেছেন। অর্থনীতিবিদরা বলছেন, এই সবের পরিণতিতেই দেশের অর্থনীতির নিয়ন্ত্রক হয়ে উঠেছেন জনাকয়েক অদক্ষ ম্যানেজার।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন