• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লকডাউনে সব বন্ধ, সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পে স্থগিতাদেশ অপ্রয়োজনীয়, জানাল সুপ্রিম কোর্ট

Supreme Court Of India
—ফাইল চিত্র।

দেশ জুড়ে লকডাউনের বিধিনিষেধ থাকায় এমনিতেই সব কাজকর্ম বন্ধ। ফলে দিল্লিতে নয়া সংসদ ভবন-সহ অন্যান্য সরকারি অফিস গড়ার সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পে স্থগিতাদেশ দেওয়াটা এই মুহূর্তে অর্থহীন। বৃহস্পতিবার জানিয়ে দিল সুপ্রিম কোর্ট। 

ওই প্রকল্পের বিরুদ্ধে একটি আবেদনের শুনানিতে এই রায় দেয় শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি এস এ বোবডে এবং বিচারপতি অনিরুদ্ধ বসুর দুই সদস্যের বেঞ্চ। এ দিন ভিডিয়ো কনফারেন্সের মাধ্যমে বেঞ্চ তার রায় দেয়। রায়দানের সময় প্রধান বিচারপতি বোবডের মন্তব্য, “এই প্রকল্পের বিরুদ্ধে একই ধরনের একটি আবেদন আদালতে পড়ে রয়েছে। কোভিড-১৯-এর এই পরিস্থিতিতে কেউ কোনও কিছুই (কাজকর্ম) করতে যাচ্ছেন না। এবং এ নিয়ে কোনও তাড়াও নেই।”

২০ হাজার কোটি টাকার সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের মাধ্যমে মধ্য দিল্লির লুটিয়েন এলাকায় সংসদ ভবন-সহ বিভিন্ন সরকারি অফিস বিল্ডিং গড়ার কাজ করতে চায় কেন্দ্রীয় সরকার। তবে মধ্য দিল্লির লুটিয়েন এলাকায় সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের আপত্তি করেছেন অনেকে। তাঁদের মতে, এতে রাজধানীর পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত হবে। ইতিমধ্যে ওই প্রকল্পে স্থগিতাদেশ চেয়ে আবেদন করে শীর্ষ আদালতের দ্বারস্থ হয়েছেন রাজীব সুরি নামে এক ব্যক্তি। আপাতত সেই আবেদন বিচারাধীন রয়েছে। ফের একই আবেদন করেন রাজীব। আদালতের কাছে তাঁর দাবি, সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পটি কেন্দ্রীয় সরকারের একটি হঠকারী সিদ্ধান্ত। এবং এর ফলে লুটিয়েন এলাকার ৮৬ একরের সবুজ ধ্বংস হবে। তাঁর আরও দাবি, ওই এলাকায় এই প্রকল্পের কাজ হলে তাতে খোলামেলা পরিবেশ এবং সবুজ উপভোগ করা থেকে স্থানীয়দের বঞ্চিত করা হবে। 

আরও পড়ুন: দেশে আতঙ্কের কেন্দ্রস্থল মুম্বই, এখনও গোষ্ঠী সংক্রমণ বলতে নারাজ সরকার

আরও পড়ুন: লকডাউনে কাজ হারাতে পারেন ১৬০ কোটি মানুষ, রাষ্ট্রপুঞ্জের সমীক্ষায় ভয়াবহ ছবি

এ দিন সুপ্রিম কোর্ট জানিয়েছে, একই বিষয় নিয়ে দু’বার আবেদন না করে আগের আবেদনেই সংশোধন করতে পারেন আবেদনকারী। প্রধান বিচারপতি বোবডের কথায়. “একই ধরনের আবেদন আদালতে মুলতুবি রয়েছে। ফলে নতুন করে এই আবেদনের প্রয়োজন নেই।”

আরও পড়ুন: গরিব মানুষকে সাহায্য করতে ৬৫ হাজার কোটি টাকা প্রয়োজন,মত রাজনের

আরও পড়ুন: বিশ্ব জুড়ে করোনায় মৃত্যু প্রায় আড়াই লক্ষ, আক্রান্ত ছাড়াল ৩২ লক্ষ

গত বছর গুজরাতের এইচসিপি ডিজাইন, প্ল্যানিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট নামে একটি সংস্থাকে সেন্ট্রাল ভিস্তা প্রকল্পের দায়িত্ব দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। মূলত, স্থানাভাবের জন্যই নতুন সংসদ ভবন-সহ অন্যান্য সরকারি অফিস গড়ে তোলা হবে বলে জানানো হয়েছে সরকারের তরফে। তবে নয়া বিল্ডিং তৈরি হলেও সংসদ ভবনের বহিরঙ্গে কোনও বদল করা হবে না জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হরদীপ সিংহ পুরি।


(অভূতপূর্ব পরিস্থিতি। স্বভাবতই আপনি নানান ঘটনার সাক্ষী। শেয়ার করুন আমাদের। ঘটনার বিবরণ, ছবি, ভিডিয়ো আমাদের ইমেলে পাঠিয়ে দিন, feedback@abpdigital.in ঠিকানায়। কোন এলাকা, কোন দিন, কোন সময়ের ঘটনা তা জানাতে ভুলবেন না। আপনার নাম এবং ফোন নম্বর অবশ্যই দেবেন। আপনার পাঠানো খবরটি বিবেচিত হলে তা প্রকাশ করা হবে আমাদের ওয়েবসাইটে।)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন