• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বেনজির বৃষ্টি বাড়াচ্ছে উদ্বেগ, তেলঙ্গনাতেই মৃত অন্তত ৩০

Hyderabad
বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত হায়দরাবাদ। ছবি: পিটিআই

টানা বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত দেশের পশ্চিম এবং দক্ষিণ ভাগ। তার জেরে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত তেলঙ্গনা। বুধবার পর্যন্ত ওই রাজ্যেই অন্তত ৩০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ১৫ জন হায়দরাবাদের। আবহবিদদের মতে, বঙ্গোপসাগরে গভীর নিম্নচাপের জেরেই ভারী বর্ষণ চলছে। তেলঙ্গনা ছাড়াও বৃষ্টি চলছে অন্ধ্রপ্রদেশ, মহারাষ্ট্র এবং কর্নাটকে।

প্রকৃতির এমন রুদ্ররূপ আগে দেখেনি হায়দরাবাদ। গত কয়েক দিন ধরে ভারতের ‘টেক সিটি’র যে ছবি দেখা গিয়েছে তা ভয়াবহ। শহরের একাধিক রাস্তাঘাট ডুবে গিয়েছে। জল ঢুকেছে বহু বাড়িতে। বেশ কিছু বাড়ি ধসে প়ড়েছে। শুধু মাত্র ওই শহরেই এক শিশু-সহ অন্তত ১৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদের মধ্যে বাড়ি ধসে পড়ায় প্রাণ হারিয়েছেন বেশির ভাগ। জলের তোড়ে খেলনার মতো ভেসে গিয়েছে গাড়ি। স্রোতে এক ব্যক্তির ভেসে যাওয়ার ভিডিয়োও ছড়িয়ে প়ড়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। তাতে ওই শহরের পরিস্থিতির আঁচ পাওয়া যাচ্ছে। এ ছাড়া গত ৪৮ ঘণ্টায় অন্ধ্রপ্রদেশেও মৃত্যু হয়েছে অন্তত ১০ জনের।

বেনজির টানা বর্ষণে বুধবার রাতে কিছুটা বিরতি ছিল। কিন্তু তা সামান্য সময়ের জন্য। উদ্বেগ বাড়িয়ে ফের বৃষ্টি শুরু হয়েছে হায়দরাবাদে। গত কাল রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। অন্ধ্রপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী জগনমোহন রেড্ডির কাছেও রাজ্যের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চান মোদী। দুই রাজ্যকেই প্রয়োজনীয় সাহায্যের আশ্বাস দেন প্রধানমন্ত্রী।

আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ ৮১ হাজার, বেশ খানিকটা কমল সক্রিয় রোগীর সংখ্যা

আরও পড়ুন: এক মাসের মধ্যেই ফের ধর্ষণ হাথরসে, এ বার ৪ বছরের শিশু

পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও। রাজ্যগুলিতে সব রকম সাহায্যের আশ্বাসও দিয়েছেন।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন