• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

কোনও মুসলিমকে ভোটের টিকিট দেব না, ঘোষণা বিজেপি মন্ত্রীর

KS Eshwarappa
—ফাইল চিত্র।

হিন্দু হওয়া নিয়ে কথা। তাহলেই ভোটের টিকিট মিলবে। কিন্তু কোনও মুসলিমকে কখনও টিকিট দেবেন না তাঁরা। বিভাজনের রাজনীতি করার অভিযোগে গেরুয়া শিবির যখন বিদ্ধ, ঠিক সেই সময় এমনই মন্তব্য করে বসলেন কর্নাটকের গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী তথা বিজেপি নেতা কেএস ঈশ্বরাপ্পা। তাঁর এই মন্তব্য নিয়ে তীব্র সমালোচনা শুরু হয়েছে।

বেলগাভি লোকসভা উপনির্বাচন নিয়ে এই মুহূর্তে সেখানে প্রস্তুতি তুঙ্গে গেরুয়া শিবিরে। সেখানকার সংখ্যাগরিষ্ঠ হিন্দু জনসংখ্যা বিজেপির ভোটব্যাঙ্ক বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। সেখানকার নির্বাচনী প্রস্তুতি নিয়ে কথা বলতে গিয়েই রবিবার এমন বিতর্কিত মন্তব্য করে বসেন ঈশ্বরাপ্পা।

সংবাদমাধ্যমে তিনি বলেন, ‘‘হিন্দু সম্প্রদায়ের যে কোনও ব্যক্তিকে টিকিট দিতে পারি আমরা। সে ব্রাহ্মণ হোক বা লিঙ্গায়েত, কুরুবা হোক বা ভোক্কালিগা। কিন্তু কোনও মুসলিমকে কখনও টিকিট দেওয়া হবে না।’’ উল্লেখ্য, কংগ্রেস ছেড়ে আসা ১৬ জন বিধায়ককে সম্প্রতি বিধানসভা উপনির্বাচনের টিকিট দিলেও সাত বারের বিধায়ক রোশন বেগ নিজে থেকে টিকিট চাইলেও, তাঁর আর্জিতে সাড়া দেননি বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন: টানা বাড়ছে পেট্রল-ডিজেলের দাম, মোদী সরকারকে খোঁচা সীতারামের​

আরও পড়ুন: কৃষক বিক্ষোভ নিয়ে মধ্যরাতে অমিতের বৈঠক, সিল করা হল দিল্লির সীমানা​

ঈশ্বরাপ্পার মতো প্রকাশ্যে মুসলিম বিরোধী মন্তব্য না করলেও, হিন্দু ভোটকে ঝুলিতে পুরতে মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পাও উদ্যোগী হয়েছেন। যে কারণে শুক্রবার বীরশৈব-লিঙ্গায়েত সম্প্রদায়কে অন্যান্য অনগ্রসর শ্রেণিতে (ওবিসি) অন্তর্ভুক্ত করার পক্ষে কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করেন তিনি।  পরে যদিও তা স্থগিত হয়ে যায়, তবে বিজেপি সূত্রে খবর, বয়সের কথা মাথায় রেখে ইয়েদুরাপ্পার বিকল্প খুঁজছেন কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব। এমন পরিস্থিতিতে নিজের ক্ষমতা বড়িয়ে দলকে বার্তা দিতেই এমন পদক্ষেপ করছেন তিনি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন