বেগতিক দেখে ক্ষমা চাইলেন বিবেক, টুইট থেকে সরালেন ঐশ্বর্যার ছবিও
রবিবার বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর ঐশ্বর্যা রাইয়ের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একটি মিম টুইট করে বেকায়দায় পড়েন বিবেক ওবেরয়।
Vivek Oberoi

—ফাইল চিত্র।

মিম-বিতর্কে কড়া সমালোচনার মুখে পড়ে অবশেষে ক্ষমা চাইলেন রুপোলি পর্দার প্রধানমন্ত্রী বিবেক ওবেরয়। ক্ষমা প্রার্থনার পাশাপাশি ঐশ্বর্য রাই বচ্চনকে ঘিরে পোস্ট করা বিতর্কিত টুইটটিও সরিয়ে ফেলেন তিনি।

মঙ্গলবার সকালে বিবেক টুইট করেন, ‘যদি এক জনও মহিলা মিম-এ করা আমার প্রত্যুত্তরে আহত হন, তবে এর প্রতিকার করা জরুরি। ক্ষমা চাইছি। টুইটও ডিলিট করেছি।’

রবিবার বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফল প্রকাশের পর ঐশ্বর্যা রাইয়ের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে একটি মিম টুইট করে বেকায়দায় পড়েন বিবেক ওবেরয়। ওই মিমে দেখা যায় তিনটি ছবি। প্রথম ছবিতে দেখানো হয়েছে সলমন খানের সঙ্গে ঐশ্বর্যের প্রেমের সম্পর্ক। তার নীচে লেখা, ‘ওপিনিয়ন পোল’। পরের ছবিতে নিজের সঙ্গে ঐশ্বর্যার সম্পর্ক। যার নীচে লেখা রয়েছে, ‘এগজিট পোল’। এবং শেষের ছবিতে অভিষেক বচ্চন ও ঐশ্বর্যা রাইয়ের সঙ্গে তাঁদের মেয়ে আরাধ্যার ছবি ছিল, যা লোকসভা নির্বাচনের চূড়ান্ত ফলাফল হিসাবে দেখানো হয়েছে। এই মিম-এর নীচে বিবেক লিখেছেন, “হাহা! নো পলিটিক্স হিয়ার... জাস্ট লাইফ!”

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

 

আরও পড়ুন: নির্বাচনী প্রচারে নিশানা করার পর মৃত্যুবার্ষিকীতে রাজীবকে শ্রদ্ধা মোদীর

আরও পড়ুন: আজ রাতেই হবে ইভিএম কারচুপি, কমিশনকে চিঠি আপ নেতার, স্ট্রং রুমে পাহারা বিরোধীদের

এই মিম শেয়ার করার পর থেকেই তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন বিবেক। অভিনেত্রী সোনম কপূর, ব্যাডমিন্টন তারকা জ্বালা গাট্টা থেকে শুরু করে বিবেকের বিরুদ্ধে মুখ খোলেন অসংখ্য নেটিজেন। গোটা ঘটনা চাপের মুখে পড়লেও প্রথম দিকে ক্ষমা চাইতে অস্বীকার করেছিলেন বিবেক। তিনি কোনও ভুল করেননি বলে দাবি করেন। উল্টে তাঁর দাবি, ‘গত দশ বছরে ২ হাজার প্রান্তিক মেয়েদের ক্ষমতায়নের জন্য কাজ করেছি। কোনও মহিলাকে অসম্মানের কথা চিন্তাই করতে পারি না।’

আরও পড়ুন: ননসেন্স! ভোটগণনায় ১০০ শতাংশ ভিভিপ্যাট মিলিয়ে দেখার আর্জি খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট

আরও পড়ুন: সঙ্ঘ নেতা সুনীল জোশী হত্যাকাণ্ডে ফের বিপাকে পড়তে পারেন সাধ্বী প্রজ্ঞা

এর পর আর এ নিয়ে নীরব থাকেনি মহারাষ্ট্র মহিলা কমিশন বা জাতীয় মহিলা কমিশন। বিবেকের জবাবদিহি চেয়ে নোটিসও পাঠিয়েছে তারা। সোমবার বিবেককে পাঠানো ওই নোটিসে জাতীয় মহিলা কমিশন লিখেছ, ‘এক জন মহিলার ব্যক্তিগত জীবনের সঙ্গে বুথফেরত সমীক্ষার ফলাফলের কুরুচিকর তুলনা টেনেছেন’ অভিনেতা বিবেক ওবেরয়। আরাধ্যার সঙ্গে ঐশ্বর্যার ছবি পোস্ট করা নিয়েও আপত্তি জানিয়েছে কমিশন। ওই ছবি পোস্ট করা যে ‘অত্যন্ত আপত্তিকর, অনৈতিক এবং তা সাধারণ ভাবে গোটা নারী জাতির প্রতি অমর্যাদা ও অসম্মান প্রদর্শন করে’, তা-ও লিখেছে কমিশন।

ঘটনাচক্রে ওই জবাবদিহির পরেই এ দিন সকালে ক্ষমা প্রার্থনা করেন বিবেক। তবে তাতে কি আদৌ চিঁড়ে ভিজবে?

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত