• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

লখনউয়ে প্রকাশ্যে ছাত্র খুনে গ্রেফতার প্রাক্তন বিধায়কের ছেলে

Lucknow Murder
ছুরির আঘাতে ক্ষতবিক্ষত হয়েও ছুটছেন প্রশান্ত সিংহ। —সিসিটিভি ফুটেজ থেকে নেওয়া ছবি

লখনউয়ে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ুয়াকে খুনের ঘটনার ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতার করল পুলিশ। অভিযুক্ত আমন বাহাদুর উত্তরপ্রদেশের প্রাক্তন বিএসপি বিধায়কের ছেলে। ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে আজ শুক্রবার সকালেই তাঁকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বৃহস্পতিবার বিকেলে ঘটনার পরেই পুলিশ জানিয়েছিল, খুনের পিছনে ব্যক্তিগত শত্রুতা থাকতে পারে। আমন বাহাদুরকে গ্রেফতারের পর সেই বিষয়টিই আরও স্পষ্ট হয়।

গতকাল বিকেলে লখনউয়ের গোমতীনগরে  এক আত্মীয়ের বাড়িয়ে যাচ্ছিলেন প্রশান্ত সিংহ (২৩) কিন্তু ওই আত্মীয়ের আবাসনে ঢোকার মুখেই খুন হন লখনউয়ের একটি অভিজাত ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজের ছাত্র প্রশান্ত সিংহ (২৩)। ওই আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, বাইকে করে আসা কয়েক জন যুবক একটি গাড়ি থামায়। তার পর গাড়ির কাচ ভেঙে ভিতরে থাকা আরোহীকে পর পর ছুরি মেরে পালিয়ে যাচ্ছে। আততায়ীরা পালিয়ে যাওয়ার পর আক্রান্ত যুবক (প্রশান্ত) গাড়ি থেকে বেরিয়ে বুকে হাত চাপা দিয়ে দৌড়ে আবাসনের ভিতরে ঢুকে যান।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রশান্তর বাড়ি বারাণসীতে। লখনউয়ে থেকে পড়াশোনা করছিলেন তিনি। গতকাল গোমতীনগরের ওই আবাসনে ঢোকার আগেই তাঁর উপর হামলা হয়। আততায়ীরা পালানোর পর প্রশান্ত গাড়ি থেকে বেরিয়ে দৌড়ে ভিতরে ঢোকার চেষ্টা করলেও পারেননি। সিঁড়িতেই পড়ে যান প্রশান্ত। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে তাঁকে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভর্তি করে। কিন্তু চিকিৎসা চলাকালীনই অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের কারণে মৃত্যু হয় প্রশান্তের।

আরও পড়ুন: ‘১৫ কোটিই যথেষ্ট ১০০ কোটির জন্য’, ওয়াইসির মঞ্চে আরও এক ভিডিয়োয় তোলপাড়

আরও পড়ুন: ‘শোভনদা’ নামছেন পুরভোটে? পদ্মের ব্যানারে রাতারাতি ছয়লাপ গোটা দক্ষিণ

ঘটনার তদন্তে নেমে ওই আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে পুলিশ। পাশপাশি প্রশান্তের বন্ধুদেরও জিজ্ঞাসাবাদ করে। তাঁদের কাছ থেকেই পুলিশ জানতে পারে, বুধবার রাতে কলেজেরই কিছু জুনিয়র পড়ুয়ার সঙ্গে তাঁর ঝগড়া হয়েছিল। বারাবাঁকি জেলায় এক বন্ধুর জন্মদিন উদযাপনে গিয়ে গন্ডগোলের সূত্রপাত। তার জেরেই এই খুন বলে মনে করছেন তদন্তকারী আধিকারিকরা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন