বুধবার সকালে নয়ডা পুলিশের কন্ট্রোল রুমে একটি ফোন আসে। ফোনের ওপারে থাকা ব্যক্তি পুলিশের কাছে দাবি করেন, তাঁর স্ত্রীকে ধর্ষণ করে খুন করা হয়েছে। তখন পুলিশ জানতে চান কোথায় হয়েছে সেই ঘটনা। ফোনের ওপারে থাকা ব্যক্তির কাছে ঘটনাস্থলের খোঁজ পেয়ে সেখানে দ্রুত পৌঁছে যায় নয়ডা পুলিশের একটি দল।

সেখানে পৌঁছে পুলিশ জানতে পারে, ধর্ষণ ও খুনের কোনও ঘটনায় সেখানে ঘটেনি। সবকিছু ঠিক আছে। এমনকি, ওই ব্যক্তির স্ত্রীও একদম ঠিক ছিলেন। এর পরই পুলিশকে ভুল তথ্য দিয়ে বিভ্রান্ত ও মিথ্যা অভিযোগ করার জন্য ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

পুলিশকে ফোন করে বিভ্রান্ত করায় অভিযুক্ত ওই ব্যক্তির নাম নরেশ সিংহ। তিনি নয়ডার ফেজ ২ পুলিশ স্টেশনের অন্তর্গত ইলাহাবাস গ্রামের বাসিন্দা। তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১০৭, ১১৬ ও ১৫১ নম্বর ধারায় মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন এক পুলিশ অফিসার। 

আরও পড়ুন: টিকটক ভিডিয়ো দেখে তিন বছর আগে পালিয়ে যাওয়া স্বামীকে খুঁজে পেলেন স্ত্রী!

আরও পড়ুন: চার মাস আগের গণধর্ষণের ভিডিয়ো ছড়িয়ে পড়ল সোশ্যাল মিডিয়ায়, গ্রেফতার পাঁচ ছাত্র