• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

গরুর ‘ধাক্কায়’ হোঁচট খেল বন্দে ভারত

Vande Bharat Express
শনিবার সকালে বন্দে ভারত এক্সপ্রেস ট্রেনের চাকায় একটি গরু কাটা পড়ে। তাতেই ব্রেক আটকে যায় বলে জানিয়েছে রেল। ছবি: পিটিআই।

Advertisement

উদ্বোধনের পরে ২৪ ঘণ্টা কাটতে না-কাটতেই যান্ত্রিক সমস্যায় থমকে গেল বন্দে ভারত এক্সপ্রেস। বারাণসী থেকে নয়াদিল্লি ফেরার সময় শনিবার সকালে ট্রেনের চাকায় একটি গরু কাটা পড়ে। তাতেই ব্রেক আটকে যায় বলে জানিয়েছে রেল।  

শুক্রবার সকালে নয়াদিল্লি এবং বারাণসীর মধ্যে এই ট্রেন যাত্রা শুরু রিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। যাত্রার গোড়াতেই বিঘ্ন ঘটায় বিরোধীরা কটাক্ষ করতে ছাড়েনি। টুইটারে রাহুল লেখেন, ‘‘মোদীজি, আমার মতে মেক ইন ইন্ডিয়া নিয়ে সত্যিই নতুন করে ভাবা উচিত। বেশির ভাগ লোকই এটিকে ব্যর্থ বলে মনে করছেন। এখন কী ভাবে কী করা উচিত কংগ্রেস সে বিষয়ে গভীর ভাবনাচিন্তা করছে। এ নিয়ে আপনাকে আশ্বস্ত করতে পারি।’’  

রেলমন্ত্রী পীযূষ গয়াল পাল্টা টুইটে লেখেন,  ‘‘এটা খুবই লজ্জার যে, আপনি ভারতীয় ইঞ্জিনিয়ার, টেকনিশিয়ান ও শ্রমিকদের কঠোর শ্রম, উদ্ভাবনী ক্ষমতাকে আক্রমণ করার জন্য বেছে নিয়েছেন। এই মানসিকতা ঠিক করা দরকার। মেক ইন ইন্ডিয়া সফল প্রকল্প। কোটি কোটি দেশবাসীর জীবন এর সঙ্গে জড়িয়ে। ভাবার জন্য আপনার পরিবার ছয় দশক পেয়েছিল। সেটা কি যথেষ্ট নয়?’’ আক্রমণ এসেছে বামেদের তরফেও। সিপিএম সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি টুইট করেন, ‘‘মোদী সরকারের সাফল্যের নজির এমনই। বিপুল প্রচারের পর বাস্তবে  বিপর্যয়ের ছবিই ফুটে উঠছে।’’ 

আরও পড়ুন: পাকিস্তানের এক কথা, প্রমাণ চাই

রেল সূত্রের খবর, এ দিন নয়াদিল্লি থেকে প্রায় ২০০ কিলোমিটার দূরে টুন্ডলার কাছে আচমকা ট্রেনের পিছনের দিকের ৪টি কামরার নীচে চাকা থেকে প্রবল ঘর্ষণের শব্দ হতে থাকে। ধোঁয়া এবং উৎকট পোড়া গন্ধে চারপাশ ভরে যায়। কামরার মধ্যেও কটু গন্ধ ছড়িয়ে পড়ে। ট্রেনের শেষের চারটি কামরার বিদ্যুৎ সংযোগ বন্ধ করে ট্রেনের গতি ঘণ্টায় ১০ কিলোমিটারে নামিয়ে আনেন চালক। সকাল ৮টা ১৫ মিনিট নাগাদ ট্রেনটিকে থামিয়ে দেওয়া হয়। ঘণ্টা খানেক পরে মেরামতির কাজ করে ট্রেনটি ফের দিল্লির উদ্দেশে রওনা হয়। বেলা ১টা নাগাদ ট্রেনটি রাজধানীতে পৌঁছয়। 

আরও পড়ুন: মিলল দায়সারা মার্কিন আশ্বাস, প্রশ্ন দ্বিচারিতার

উদ্বোধনী যাত্রার পরে রেলের বিভিন্ন আধিকারিক এবং এক দল সাংবাদিক ওই ট্রেনেই দিল্লি ফিরছিলেন। ট্রেন থমকে যাওয়ায় তাঁদের বিকল্প ট্রেনে দিল্লি পাঠানো হয়। 

রেল সূত্রের খবর, ‘কমিশনার অব রেলওয়ে সেফটি’-র পরামর্শ অনুযায়ী ঘন বসতির এলাকায় দু’পাশে বেড়া দেওয়ার কথা। কিন্তু তা না করেই তড়িঘড়ি ট্রেন চালু করায় এই বিপত্তি ঘটে থাকতে পারে। আপাতত ট্রেনটির গতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১৩০ কিমিতে বেঁধে দেওয়া হয়েছে বলে খবর। 

রেল জানিয়েছে, আজ, রবিবার নির্ধারিত সময়েই (সকাল ৬টা) ট্রেনটি প্রথম বাণিজ্যিক যাত্রা শুরু করবে যাত্রীদের নিয়ে। সব টিকিটই বিক্রি হয়ে গিয়েছে। ট্রেনটি বেলা ২টো নাগাদ বারাণসী পৌঁছবে। বিকেল ৩টেয় সেখান থেকে ছেড়ে রাত ১১টায় তার নয়াদিল্লি ফেরার কথা। 

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন