• সংবাদ সংস্থা  
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আসাদউদ্দিনের সামনে সিএএ বিরোধী মঞ্চে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান, গ্রেফতার তরুণী

Pak zinda slogan
আসাদউদ্দিন ওয়াইসির উপস্থিতিতেই পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলেছে অমূল্য। ছবি ভিডিয়ো থেকে সংগৃহীত।

বেঙ্গালুরুতে ছিল সংশোধিত নাগরিকত্ব আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ। সেই প্রতিবাদ মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন অল ইন্ডিয়া মজলিস-ই-ইত্তেহাদুল মুসলিমিন (মিম) নেতা আসাদউদ্দিন ওয়াইসি। সেখানেই এক তরুণী মাইক নিয়ে ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিতে শুরু করেন। তা শুনেই মঞ্চে উপস্থিত আসাদউদ্দিন-সহ অন্যরা তাঁকে বাধা দেন। জানা গিয়েছে, ওই মহিলার নাম অমূল্য। রাষ্ট্রদ্রোহের অপরাধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪এ ধারায় তাঁকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

‘সেভ কনস্টিটিউশন’ ব্যানারের নীচে আয়োজন করা হয়েছিল সিএএ বিরোধী প্রতিবাদ মঞ্চের। সেখানেই বক্তৃতা করতে গিয়ে ওই যুবতী চেঁচিয়ে ওঠেন ‘পাকিস্তান জিন্দাবাদ’। সে সময় মঞ্চের অন্যপ্রান্তে ছিলেন আসাদউদ্দিন। এই স্লোগান শুনে ওই যুবতীর কাছে এসে তিনি বলেন, ‘‘এ কী বলছেন আপনি?’’ তাঁর কাছ থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেওয়ারও চেষ্টা করেন হায়দরাবাদের সাংসদ।

ভিডিয়োতে দেখা যাচ্ছে, মাইক কেড়ে নেওয়ার চেষ্টা হলেও ওই যুবতী কিছুতেই তা ছাড়তে চাইছেন না। সেই সময় অমূল্যকে একবার ‘হিন্দুস্তান জিন্দাবাদ’ বলতেও শোনা যায়। এর পরই তাঁর হাত থেকে মাইক্রোফোন কেড়ে নেওয়া হয়। তাঁকে পিছনে নিয়ে যায় পুলিশ। সেখান থেকে নিজেকে ছাড়িয়ে ফের মঞ্চের সামনে এসে আরও কিছু বলার চেষ্টা করছিলেন ওই তরুণী। কিন্তু তখন তাঁর হাতে ছিল না মাইক্রোফোন।

এর পর মঞ্চে পুলিশ উঠে তাঁকে আটক করে মঞ্চ থেকে নামিয়ে নিয়ে চলে যায়। বেঙ্গালুরুর সিনিয়র পুলিশ অফিসার বি রমেশ বলেছেন, ‘‘তাঁর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ১২৪এ (দেশদ্রোহিতা), ১৫৩এ এবং বি ধারায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।’’ পরে তাঁর জামিনের বিরোধিতা করে ১৪ দিনের বিচারবিভাগীয় হেফাজতের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। স্থানীয় আদালত আগামী সোমবার ফের তাঁর জামিনের আবেদন শুনবে।

ওই যুবতীর বক্তব্যের বিরোধিতা করে আসাদউদ্দিন ওয়াইসি বলেছেন, ‘‘এই বক্তব্যের তীব্র নিন্দা করছি। ওই মহিলার সঙ্গে আমার দলের কোনও যোগাযোগ নেই। আমরা ভারতের পক্ষে এবং কোনও ভাবেই আমাদের শত্রু পাকিস্তানকে সমর্থন করি না। আমাদের লড়াই ভারতকে বাঁচানোর।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘আমাদের জন্য ভারত জিন্দাবাদ থা, জিন্দাবাদ রাহেগা।’’

আরও পড়ুন: হিন্দুরা কি সংখ্যালঘু! মামলা হাইকোর্টে

যদিও এই ঘটনার পরই আসাদউদ্দিন-সহ সিএএ বিরোধীদের আক্রমণ করেছে কর্নাটক বিজেপি। টুইটে বিজেপি লিখেছে, ‘‘মিম প্রধান আসাদউদ্দিন ওয়াইসির উপস্থিতিতেই পাকিস্তান জিন্দাবাদ বলেছে অমূল্য। সিএএ বিরোধিতা পাকিস্তান ও দেশবিরোধী শক্তিদের দ্বারা পরিচালিত, সেই সত্যি সামনে এল। যারা পাকিস্তানকে সমর্থন করে, তাদের সেখানেই চিরতরে চলে যাওয়া উচিত।’’

এই ঘটনা প্রসঙ্গে মুখ খুলেছেন অমূল্যর বাবা। তিনি এক সংবাদ সংস্থাকে বলেছেন, ‘‘ও যেটা বলেছে সেটা ভুল। কিছু মুসলিমের সঙ্গে যোগ দিয়েছে ও। আমার কথা শুনছে না।’’ অমূল্যের উপর ক্ষোভ উগরে দিয়ে তিনি জানিয়েছেন, ‘‘আমার মেয়েকে জেলে পচতে দিন। পুলিশ তাঁর পা ভেঙে দিক। আমি কোনও অভিযোগ করব না। ওর জন্য পরিবার প্রচুর দুর্দশার সম্মুখীন হয়েছে।’’

আরও পড়ুন: ‘উত্তরপত্রে ১০০ টাকার নোট আটকে দিও’, পরীক্ষার্থীদের পরামর্শ প্রিন্সিপালের

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন