আজ, মঙ্গলবার মাঝরাতের একটু পরেই চাঁদ আংশিক ভাবে ঢাকা পড়বে পৃথিবীর ছায়ায়। হবে এই বছরের প্রথম ও শেষ আংশিক চন্দ্রগ্রহণ। আর সেই গ্রহণ দেখা যাবে কলকাতা-সহ ভারতের সর্বত্রই। শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত। ভোরের আলো ফোটার সঙ্গে সঙ্গে চাঁদ ডুবে যাবে বলে আংশিক চন্দ্রগ্রহণের শেষটা শুধু দেখতে পারবেন না অরুণাচল প্রদেশের উত্তর-পূর্ব প্রান্তের মানুষ।

সল্টলেকের পজিশনাল অ্যাস্ট্রোনমি সেন্টারের (পিএসি) অধিকর্তা সঞ্জীব সেন জানিয়েছেন, মঙ্গলবার মাঝরাতের পর ভারতীয় সময় ১টা ৩১ মিনিটে শুরু হবে আংশিক চন্দ্রগ্রহণ। সেই আংশিক গ্রহণ সর্বোচ্চ মাত্রায় (পিক পিরিয়ড) পৌঁছবে বুধবার ভোর রাত ৩টা ১ মিনিটে। যখন চাঁদের অর্ধেকেরও বেশি অংশ ঢাকা পড়ে যাবে পৃথিবীর ছায়ায়। তার পরেই পৃথিবীর ছায়া থেকে বেরিয়ে আসতে শুরু করবে আমাদের আদরের চাঁদ। আংশিক গ্রহণ পুরোপুরি শেষ হবে বুধবার ভোর সাড়ে ৪টায়। তখন আকাশে চাঁদের প্রয়োজনও ফুরিয়েছে আমাদের কাছে।

সঞ্জীবের কথায়, ‘‘এ বার আংশিক চন্দ্রগ্রহণ ভারতের সর্বত্র তো বটেই দেখা যাবে অস্ট্রেলিয়া, উত্তর-পূর্ব অংশটি বাদ দিয়ে গোটা এশিয়া, স্ক্যান্ডিনেভিয়ার উত্তর দিকটিকে বাদ দিয়ে গোটা ইউরোপ এবং দক্ষিণ আমেরিকার বেশির ভাগ অংশেই।’’

আরও পড়ুন- গলদ ‘ও’ রিংয়েই, ফুলে ফেঁপে ওঠেনি বলেই গভীর রাতে থমকে গেল চন্দ্রযান-২ অভিযান​

আরও পড়ুন- হুগলির চন্দ্রকান্তের তৈরি অ্যান্টেনার ভরসায় ফের চাঁদের কক্ষপথে ঢুকছে ইসরো​

যে কোনও বছরে (জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর) পৃথিবীতে সবচেয়ে বেশি হলে মোট ৭টি গ্রহণ হতে পারে। সে ক্ষেত্রে ৪টি হবে সূর্যগ্রহণ আর ৩টি চন্দ্রগ্রহণ। বা হবে ৫টি সূর্যগ্রহণ আর ২টি চন্দ্রগ্রহণ। আংশিক, পূর্ণগ্রাস ও বলয় গ্রাসের মতো সেই সূর্য ও চন্দ্রগ্রহণগুলি সব ধরনেরই হতে পারে। আর সবচেয়ে কম হলে বছরে গ্রহণের সংখ্যা হয় ২টি। আর সে ক্ষেত্রে সেই দু’টিই হবে সূর্যগ্রহণ।

এই বছর গ্রহণ হওয়ার কথা মোট ৫টি। বছরের প্রথম গ্রহণটি হয়েছিল ৬ জানুয়ারি। তা ছিল আংশিক সূর্যগ্রহণ। যা ভারতে দেখা যায়নি। তার পর পূর্ণগ্রাস চন্দ্রগ্রহণ হয়েছিল ২১ জানুয়ারি। সেটিও ভারতে দেখা যায়নি। তার পরেরটি ছিল পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ। দেখা যায়নি ভারতে। চিলি, আর্জেন্টিনা-সহ দক্ষিণ আমেরিকার একটি বিস্তীর্ণ এলাকায় দেখা গিয়েছিল সেই পূর্ণগ্রাস সূর্যগ্রহণ।

মঙ্গলবার বছরের প্রথম ও শেষ আংশিক চন্দ্রগ্রহণটি দেখা যাবে গোটা ভারতেই। এই বছরে হাতে পড়ে রয়েছে আর একটি গ্রহণ। সূর্যের বলয় গ্রাস। যা হবে আগামী ২৬ ডিসেম্বর। সেটিও ভারতে দেখা যাবে। সূর্যের সেই বলয় গ্রাসের পথটাই যাবে দক্ষিণ ভারতের উপর দিয়ে।