Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৭ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

বন্যা-ঝড় কাড়তে পারে আপনার সাধের বাড়ি। বিমার কথা ভেবেছেন কখনও?

নিজস্ব প্রতিবেদন
০৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ১২:৫৬


প্রতীকী চিত্র

আম্ফানের পরে কী কান্না শ্যামবাবুর। বাইপাসের ধারে জমি পেয়েছিলেন উত্তরাধিকার সূত্রে। এক সময়ের শেয়ালের আড্ডা্য় এখন চওড়া রাস্তা, গ্যারাজে গ্যারাজে ঢাউস ঢাউস গাড়ি। ধার-ধোর করে তাই বেশ খানিকটা ক্ষমতার বাইরে গিয়েই বাড়িটা করেছিলেন শ্যামবাবু। সন্ধেবেলা গরম কালে মশার কামড় ঠেকিয়ে বারান্দায় বসলে মনে হয় যেন কলকাতায় নয়, কোথাও একটা বেড়াতে গিয়েছেন। তা একটা কাচের ঘরও বানিয়েছেন, যেখানে বসেও প্রকৃতিকে উপভোগ করা যায় বেশ।

আয়লার সময় অতটা বোঝা যায়নি। শ্যামবাবুর বাড়ি তখন এক তলায়। পরের দু’বারের বৃষ্টিতেও ততটা চাপ বোধ করেননি। কিন্তু এবার আম্ফান আধ ঘন্টায় শ্যামবাবুর সাধের বাড়ি তছনছ করে দিয়ে গেল। কাচের ঘর চোখের সামনে উড়ে গেল, যেমন সিনেমায় দেখা যায়। কোথা থেকে উড়ে এল এক ঢাউস টিন, হয়ত কোনও প্রতিবেশীর সখের ছাদের ঘর ভাঙল। কিন্তু তাতে দোতলার জানলাটা ভাঙল। আর ঝড়ের সেই প্রবল দাপটে স্ত্রীর কান্না আর উন্মুক্ত ঘরে সাজানো আসবাব বৃষ্টির দাপটে নষ্ট হওয়া সামলাতে সামলাতে তাঁর তো হার্ট অ্যাটাক হওয়ার উপক্রম।

ঝড় থামল। কোভিডের মধ্যেই মিস্ত্রি ডেকে ভাঙা বাড়ি ঠিক করানোর হিসাব করতে গিয়ে তো মাথায় হাত শ্যামবাবুর। পাক্কা ৬০ হাজার টাকার ধাক্কা। না। শ্যামবাবু বিমা করাননি। আর তার মূল্য এবার চোকাতে হল তলানিতে থাকা সঞ্চয় ভাঙিয়েই।

Advertisement

শ্যামবাবু একা নন। গোটা দেশেই মাত্র তিন শতাংশ বাড়িতে বিমা করানো আছে। অথচ, মধ্যবিত্তের জীবনে মাথার ছাদই কিন্তু সব থেকে দামি সম্পদ। আম্ফানের চোট না পেলে যেমন শ্যামবাবু বুঝতেন না কী ভুল তিনি করেছেন, তেমনই বাকিরাও বাড়ি বাঁচাতে বিমা না করে বসে থাকেন “আমার কিছু হবে না” এই ভেবেই।

অথচ আগুন, বন্যা বা ঝড়ের থেকে বাঁচতে কিন্তু আপনি বিমা কিনতে পারেন। বাজারে দু’ধরনের বিমা পাওয়া যায়। শুধু প্রকৃতির তাণ্ডবে বাড়ির ক্ষতির জন্য অথবা রায়ট, চুরি, ডাকাতি থেকে হওয়া ক্ষতির জন্য। কিছু বিমা আছে যাতে এই দুই ধরনের ক্ষতির জন্যই বিমা করানো যায় এক সঙ্গে।

কিছু বিমা আছে, যাতে এই জাতীয় বিপর্যয়ে আপনার শারীরিক ক্ষতি জনিত খরচের টাকাও পাওয়া যায়। আবার তাই নয়, বন্যা, আগুন বা ঝড়ে বাড়ির ক্ষতির জন্য যদি আপনাকে অন্যত্র কিছু দিনের জন্য বাড়ি ভাড়া নিয়ে চলে যেতে হয় বাড়ি সারানোর সময়টুকুর জন্য, বিমায় কিন্তু সেই ভাড়াও আপনি পেতে পারেন বিমা সংস্থার কাছ থেকে।

তাই ভাবুন। দেরি না করে, শ্যামবাবুর মতো মাথায় হাত পড়ার আগেই খোঁজ করুন সেই গৃহ বিমার যা আপনাকে প্রাকৃতিক বিপর্যয় বা চোর-ডাকাতির ক্ষতি থেকে রক্ষা করতে পারে।

আরও পড়ুন

Advertisement