Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৫ জুন ২০২২ ই-পেপার

PRESENTS
CO-POWERED BY

SBI: ৩১ মার্চের মধ্যে এই কাজগুলি না করলে বন্ধ হয়ে যেতে পারে স্টেট ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্ট

অনেক ব্যাঙ্কই আছে যারা চলতি অর্থবর্ষে নিয়মে একাধিক বদল নিয়ে এসেছে। ভারতের অন্যতম বৃহত্তম ব্যাঙ্কের মধ্যে একটি হল স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া।

তন্ময় দাস
কলকাতা ২১ মার্চ ২০২২ ১৪:২৭
ফাইল চিত্র।

এই বছর এসবিআই তাদের গ্রাহকদের জন্য বেশ কয়েকটি নতুন নিয়ম তৈরি করেছে।
ফাইল চিত্র।

কথায় আছে, নিয়ম বদলেই নাকি লুকিয়ে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের নিয়ম। এ কথা আংশিক সত্যই বটে! পরিসংখ্যান বলছে বিগত অর্ধ দশকে একাধিক বার বদলেছে ব্যাঙ্কের নিয়ম। যে নিয়মগুলির সঙ্গে হয়তো এখনও ঠিক মতো মানিয়ে নিতে পারেননি সাধারণ মানুষ। অথচ নিয়ম না মানলে আর্থিক বছর পার হতেই কোপ পড়তে পারে অ্যাকাউন্টে।
অনেক ব্যাঙ্কই আছে যারা চলতি অর্থবর্ষে নিয়মে একাধিক বদল নিয়ে এসেছে। ভারতের অন্যতম বৃহত্তম ব্যাঙ্কের মধ্যে একটি হল স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া (এসবিআই)। এই বছর এসবিআই তাদের গ্রাহকদের জন্য বেশ কয়েকটি নতুন নিয়ম তৈরি করেছে। প্রত্যেক গ্রাহকেরই উচিত এই নিয়মগুলি সম্পর্কে অবগত থাকা। স্বাভাবিক ভাবেই নিয়ম না মানলে ভবিষ্যতে বিপদে পড়তে পারেন তাঁরা।

স্টেট ব্যাঙ্কের ধার্য করা একাধিক নিয়মের মধ্যে একটি অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ নিয়ম হল এসবিআই গ্রাহকদের আধার কার্ড এবং প্যান কার্ড ব্যাঙ্কের সঙ্গে সংযুক্ত করা। শুধু প্যান ও আধার লিঙ্কই নয়, যে সমস্ত গ্রাহক এক বছরেও বেশি সময় ধরে কেওয়াইসি জমা করেননি, কিংবা অ্যাকাউন্টে কোনও রকম লেনদেন করেননি, সেই সমস্ত গ্রাহককে নতুন করে কেওয়াইসি জমা করতে হবে। সংশ্লিষ্ট গ্রাহকরা মার্চ মাসের মধ্যে এই সংযুক্তিকরণ না করালে তাদের পলিসির পরিষেবা বন্ধ হয়ে যেতে পারে। পাশাপাশি সেই পলিসির ক্ষেত্রে জমা দেওয়া প্যান কার্ডও অকার্যকর হিসেবে গণ্য হতে পারে। শুধু তাই নয়, যে সমস্ত গ্রাহক নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে প্যান এবং আধার কার্ড লিঙ্ক করাবেন না, তারা এসবিআই কর্তৃক প্রাপ্ত ব্যাঙ্ক পরিষেবা থেকেও বঞ্চিত হতে পারেন। তাই বেশি দেরি না করে খুব শীঘ্রই প্যান এবং আধারের লিঙ্ক সেরে ফেলুন। আর যাঁরা এক বছরেরও বেশ সময় ব্যাঙ্কে যাননি অথবা ব্যাঙ্কে কোনও রকম লেনদেন করেননি, তারা অবশ্যই নিজেদের অ্যাকাউন্টে কেওয়াইসি আপডেট করুন। তা ছাড়াও যদি কোনও ব্যক্তি প্যান-আধার লিঙ্ক সময়ের মধ্যে না করাতে পারেন, তা হলে সেই ব্যক্তিকে এক হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানাও করা হতে পারে।
এসবিআইতে গ্রাহকেরা কী ভাবে প্যান ও আধার লিঙ্ক করাবেন

Advertisement

প্রথমে লিঙ্ক আধার সেকশনে গিয়ে আপনার বৈধ প্যান ও আধার নম্বর লিখুন। একই সঙ্গে পলিসি হোল্ডারের নাম লিখুন। প্যান কার্ড এবং আধার কার্ড ব্যাঙ্কের সঙ্গে লিঙ্ক করতে হবে ই-ফাইলিং পোর্টালের মাধ্যমে। ফাইলিং করার সময় আপনার আধার কার্ড, প্যান কার্ড এবং আরও বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতের সামনে রাখবেন। incometax.gov.in এই সাইটে লগ ইন করার মাধ্যমে আধার এবং প্যান কার্ড লিঙ্ক করার বিষয়ে প্রয়োজনীয় সমস্ত কিছুর বিস্তারিত নির্দেশিকা পেতে পারেন।
এ ছাড়াও আরও এক রকম ভাবে প্যান ও আধার লিঙ্ক করাতে পারেন।

প্রথমে www.incometaxindiaefiling.gov.in/home-এ যেতে হবে। এর পর বাঁ দিকে ‘Link Aadhaar’ অপশন আসবে। সেখানে ক্লিক করতে হবে। এর পর স্ট্যাটাস দেখতে ‘Click here’-এ ক্লিক করতে হবে। এর পরই নতুন ট্যাব খুলে গেলে আপনার আধার প্যান-এর বিবরণ দিতে হবে। যদি আপনার প্যান কার্ডের সঙ্গে লিঙ্ক করা থাকে তা হলে মেসেজে নিশ্চিত করতে হবে। এ ক্ষেত্রে মেসেজ আসবে your PAN is linked to Aadhaar Number।

তবে মনে রাখবেন, এই পরিষেবা কিন্তু চলতি বছরের ৩১ মার্চ অবধি কেবল উপলব্ধ থাকবে। এই সময়সীমার মধ্যে প্যান ও আধার কার্ড লিঙ্ক না করালে ১০০০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করা হতে পারে।

যদি কোনও ব্যক্তির কাছে অবৈধ প্যান কার্ড থাকে, সে ক্ষেত্রে আয়কর আইন ১৯৬১ এর ধারা ২৭২ এন— এর আওতায় সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে ১০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে। এর আগে প্যান-আধার লিঙ্ক করার ক্ষেত্রে সময়সীমা অতিক্রম করলে কোনও জরিমানা ব্যবস্থা ছিল না। তবে নতুন নিয়ম অনুযায়ী, এই দু’টি গুরুত্বপূর্ণ পরিচয়পত্র লিঙ্ক সঠিক সময়ে না করানো হলে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি কোনও রূপ আর্থিক লেনদেন করতে পারবে না। এমনকি আয়কর রিটার্নও ফাইল করা যাবে না।

Advertisement