মটনের অন্যতম সেরা রেসিপি মটন রেজালায় মন ভরান অতিথির

নিজস্ব প্রতিবেদন
মটনের অন্যতম সেরা রেসিপি মটন রেজালায় মন ভরান অতিথির

মটনের কাছে নতজানু হয় মা এমন রসনা সচরাচর ভোজনরসিকরা পান না। কালিয়া থেকে কোর্মা, রগরগে ঝোল থেকে চাঁপ— মটনের যাতায়াত বাঙালি মনে অবাধ। 

তবে অনেকেই বড় মাংসের টুকরো দিয়ে ঝাল ঝাল চাঁপ পছন্দ করেন না। কেউ বা ঝাল-ঝোলের চেয়ে মটনের কম মশলার রেসিপিই বেশি পছন্দ করেন। মটনের রান্নাতেও যাঁরা একটু মিষ্টি স্বাদ চান, রেজালার জন্ম যেন তাঁদের জন্যই।

আজই বাড়িতে রেঁধে ফেলুন মটন রেজালার সাদা গ্রেভির এই রান্না। পোলাও বা রুটি— যে কোনও পদের সঙ্গেই রেজালা চলে। এই উপায়ে রান্না করা মটন রেজালার স্বাদ রেস্তরাঁর চেয়ে কম কিছু হবে না!

মটন রেজালা

উপকরণ:
খাসির মাংস: ১ কেজি

আদা বাটা: ১ টেবিল চামচ

রসুন বাটা: ১ চা চামচ

জিরে বাটা: ১ চা চামচ

পোস্ত বাটা: ১ চা চামচ

বাদাম বাটা: ১ চা চামচ

মরিচ গুঁড়ো: আধ চা চামচ

টক দই: ১ কাপ

মাখন: ২ টেবিল চামচ

তেল: আধ কাপ

পিঁয়াজ বাটা: ২ টেবিল চামচ

ঘি: ২ টেবিল চামচ

পিঁয়াজ ভাজা: ১ কাপ

নুন: স্বাদ মতো

কাঁচা লঙ্কা: স্বাদ অনুযায়ী

শুকনো লঙ্কা: কয়েকটি (সাজানোর জন্য)

চিনি: ১ চা চামচ

গরম মশলা: ৪ টুকরো করে

জায়ফল-জয়ত্রি-দারচিনি: একসঙ্গে গুঁড়ো, দেড় চা চামচ


প্রণালী

প্রথমে প্রেশার কুকারে মাংস সিদ্ধ করে নিন। এ বার সিদ্ধ মাংসের গায়ে সব মশলা মিশিয়ে তাকে ২ ঘণ্টা ম্যারিনেট করে রাখুন। এর পর কড়ায় ঘি ও তেল দুই-ই মিলিয়ে দিন। গরম হলে এতে পিঁয়াজ দিয়ে তা বাদামি করে ভেজে তুলে রাখুন।

এ বার ওই ঘি-তেলের মিশ্রণেই মশলা মাখানো মাংস দিয়ে দিন। ঢিমে আঁচে কষতে থাকুন। জল বেরিয়ে এলে দেখে নিন মাংস সুসিদ্ধ হল কি না। এ বার বেরেস্তা (ভাজা পিঁয়াজ) ছড়িয়ে দিন মাংসের উপর। এর পর এতে স্বাদ অনুযায়ী লঙ্কা মেশান। কষানোর মধ্যেই স্বাদ অনুযায়ী চিনি দিন। মাখন যোগ করুন এতে। মাংস নরম হয়ে তেলের উপর ভেসে উঠলে তা নামিয়ে পরিবেশন করুন রুটি, নান বা পরোটার সঙ্গে।