Advertisement
২৮ জানুয়ারি ২০২৩
Saraswati Pujo

বসন্ত পঞ্চমীর সকালে হলুদের ফোঁটা আর অঞ্জলি শেষে দুপুর জমে উঠুক ভুনি খিচুড়িতে

চটজলদি ভুনি খিচুড়ি বানাবেন কী করে? রইল তার সহজ পদ্ধতি।

সরস্বতী পুজোয় বানাতে পারেন ভুনি খিচুড়ি।

সরস্বতী পুজোয় বানাতে পারেন ভুনি খিচুড়ি। ছবি: সংগৃহীত।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৩ জানুয়ারি ২০২৩ ২০:৪২
Share: Save:

শিরশিরে হাওয়ায় ভোরবেলা উঠে স্নান করে শাড়ি পরে দেবী সরস্বতীর পায়ে অঞ্জলি দিয়েই ছুটতে ছুটতে এসে রান্না করা। দুপুরের একপ্রস্ত রান্না শেষ হলে, সন্ধেতে আবার গোটাসেদ্ধর পর্বও আছে। দুপুরের খাবারে এত সময় দিলে সন্ধের আয়োজনে আবার ভাটা পড়বে। তাই চটজলদি হয়ে যায় এমন খিচুড়ির সন্ধান করতে গিয়ে জানতে পারলেন ভুনি খিচুড়ির কথা। কিন্তু বানাবেন কী করে? রইল ভুনি খিচুড়ি বানানোর সহজ পদ্ধতি।

Advertisement

ভুনি খিচুড়ি বানাতে কী কী লাগবে?

উপকরণ

গোবিন্দভোগ চাল: ১ কাপ

Advertisement

সোনামুগ ডাল: ১ কাপ

সর্ষের তেল: ৩ টেবিল চামচ

ঘি: ৩ টেবিল চামচ

তেজপাতা: ২টি

শুকনো লঙ্কা: ৩টি

গোটা জিরে: ১ চা চামচ

দারচিনি: এক টুকরো

এলাচ: ৪টি

লবঙ্গ: ৬টি

আদা বাটা: ১ টেবিল চামচ

কাজু: ৩ টেবিল চামচ

কিশমিশ: ২ টেবিল চামচ

নুন: স্বাদ অনুযায়ী

চিনি: স্বাদ অনুযায়ী

টম্যাটো: ১টি

জল: ৪ কাপ

জিরে গুঁড়ো: ১ চা চামচ

লঙ্কা গুঁড়ো: আধ চা চামচ

প্রণালী

১) প্রথমে কড়াইতে সমপরিমাণ তেল এবং ঘি দিয়ে তার মধ্যে তেজপাতা, শুকনো লঙ্কা, গোটা গরম মশলা দিয়ে এবং গোটা জিরে ফোড়ন দিন।

২) একটু নাড়াচাড়া করে এর মধ্যে দিয়ে দিন টম্যাটো কুচি। এর পর দিন আদাবাটা। একে একে দিয়ে দিন হলুদ, লঙ্কা, জিরে গুঁড়ো। সঙ্গে দিন কাজু এবং কিশমিশ।

৩) ভাল করে মিশিয়ে নিয়ে আগে থেকে ভিজিয়ে রাখা চাল এবং ডাল দিয়ে ভেজে নিন। উপর থেকে ছড়িয়ে দিন কাঁচা লঙ্কা।

৪) চাল-ডাল মিশে সুন্দর গন্ধ বেরোলে জল দিন। জল দেওয়ার সময় খেয়াল রাখতে হবে চাল এবং ডালের মাপ। জল যেন বেশি না হয়, চাল-ডালের দ্বিগুণ মাপের জল দিতে হবে। খেয়াল রাখতে হবে যেন জলও শুকিয়ে যায়।

৫) যে কোনও খিচুড়ির তলা ধরে যাওয়ার প্রবণতা থাকে। তাই চাল-ডাল সেদ্ধ হওয়ার মাঝেমাঝেই ভাল করে নাড়াচাড়া করতে হবে। সব শেষে উপর থেকে ঘি ছড়িয়ে এবং গরমমশলা ছড়িয়ে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে ভুনি খিচুড়ি। পাঁচ রকম ভাজার সঙ্গে গরম গরম পরিবেশন করুন ভুনি খিচুড়ি।

(এই প্রতিবেদনের সঙ্গে প্রথমে ব্যবহৃত ছবিটি ‘বং ইটস’ ব্লগ থেকে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু ভুলবশত সেই ছবির জন্য সৌজন্য প্রকাশ করা হয়নি। অনিচ্ছাকৃত এই ভুলের জন্য আমরা আন্তরিক দুঃখিত ও ক্ষমাপ্রার্থী। সৌজন্য ছাড়া ছবি ব্যবহারের কোনও উদ্দেশ্য আমাদের ছিল না। ছবিটি বদলে দেওয়া হল।)

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.