টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ এবং অ্যাশেজের প্রথম দিনে অস্ট্রেলিয়ার স্টিভ স্মিথ দুর্দান্ত সেঞ্চুরি করলেও মাঠে সেরা খেল দেখালেন আম্পায়াররাই। একই দিনে মোট সাত বার ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে ক্রিকেট বিশ্বকে চমকে দিলেন অভিজ্ঞ আম্পায়ার আলিম দার এবং জয়েল উইলসন জুটি।

এর মধ্যে পাঁচটি সিদ্ধান্তই ডিএরএসের মাধ্যমে বদল করা সম্ভব হলেও দু’টি সিদ্ধান্ত অপরিবর্তিতই থেকে গিয়েছে। তাঁদের এই অভিনব পার্টনারশিপে আলিম দার চারটি এবং জয়েল উইলসন নিয়েছেন তিনটি ভুল সিদ্ধান্ত।

এতে প্রভাবিত হয়েছেন অস্ট্রেলিয়ার মোট ছয় জন ব্যাটসম্যান। এঁরা হলেন ডেভিড ওয়ার্নার, উসমান খোয়াজা, স্টিভ স্মিথ, ম্যাথিউ ওয়েড, জেমস প্যাটিনসন এবং পিটার সিডেল। এদের মধ্যে অস্ট্রেলিয়ার তারকা ওপেনার ডেভিড ওয়ার্নারের উইকেটটি নিয়ে এক প্রকার ছেলেখেলা করলেন অভিজ্ঞ আম্পায়ার আলিম দার।

প্রথম ইনিংসের প্রথম বলেই ওয়ার্নারের ব্যাটে লেগে কিপার ক্যাচ ধরলেও আউট দেননি তিনি। এরপর তৃতীয় ওভারে স্টুয়ার্ট বর্ডের বলে এলবিডাব্লিউ হন ওয়ার্নার। পরে দেখা যায় এটাও আম্পায়ার আলিম দারের ভুল সিদ্ধান্ত।

উল্লেখ্য, ক্রিকেটে খারাপ আম্পায়ারিংয়ের উদাহরণ এই প্রথম নয়। সদ্য শেষ হওয়া একদিনের বিশ্বকাপেও বারবারই খারাপ আম্পায়ারিংয়ের উদাহরণ দেখা গিয়েছে। এমনকি বিশ্বকাপের হাড্ডাহাড্ডি ফাইনালেও অভিজ্ঞ কুমার ধর্মসেনাও ওভার-থ্রোতে পাঁচের বদলে ছয় রান দিয়ে ইংল্যান্ডের হাতে কাপ তুলে দিয়েছিলেন। যা নিয়ে বিশ্ব জুড়ে কম জলঘোলা হয়নি।

আরও পড়ুন: ধোনির সাতে নামা আমার একার সিদ্ধান্ত ছিল না, বলছেন বাঙ্গার

তার রেশ কাটতে না কাটতেই টেস্ট চ্যাম্পিয়ানশিপের শুরুতে আবারও একই দৃশ্য। ইতিমধ্যেই এই নিয়ে অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন তারকা শেন ওয়ার্ন এবং প্রাক্তন ইংল্যান্ড অধিনায়ক নাসির হুসেন সরাসরি এই ঘটনার সমালোচনাও করেছেন।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ শেষ হতে বাকি এখনও দু’বছর। তাই প্রথম দিনই যদি এই হাল হয় তা হলে সারা টুর্নামেন্টে কী হাল হবে। চিন্তিত ক্রিকেট ভক্তরাও।

আরও পড়ুন: টুইটারে বিরাটের পোস্ট করা দলের ছবিতে নেই রোহিত, জল্পনা শুরু সোশ্যাল মিডিয়া