টেস্টে ওপেনার হিসেবে প্রথমবার নেমেই সুপারহিট ‘হিটম্যান’। প্রথম ইনিংসে ১৭৬। দ্বিতীয় ইনিংসে ১২৭। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে বিশাখাপত্তনমে সিরিজের প্রথম টেস্টে মোট ৩০৩ রান। ম্যাচের সেরাও তিনি। রোহিত শর্মার দুই ইনিংসেই শতরান ভারতের ২০৩ রানে জয়ের ভিত গড়ে দেয়।

মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হিসেবে টেস্টের প্রথম এগারোয় জায়গা নিশ্চিত করতে পারছিলেন না রোহিত। অন্যদিকে, লোকেশ রাহুল ব্যর্থ হয়েছিলেন ওপেনার হিসেবে। এই দুই কারণেই টেস্টে ওপেনার হিসেবে রোহিতের কথা ভাবা হয়। আর তিনি সেই আস্থার মর্যাদা দিয়েছেন পুরোপুরি।

প্রথম ইনিংসে ওপেনিংয়ে ময়াঙ্ক আগরওয়ালের সঙ্গে ৩১৭ রান যোগ করেছিলেন রোহিত। যা ভারতের ৫০২ রানে পৌঁছনোর রাস্তা গড়ে দেয়। জবাবে দক্ষিণ আফ্রিকা তোলে ৪৩১ রান। দ্বিতীয় ইনিংসেও রোহিতের শতরানে ভর দিয়ে ৩২৩ তোলে ভারত। জেতার জন্য চতুর্থ ইনিংসে ৩৯৫ তুলতে হত প্রোটিয়াদের। ১৯১ রানে থেমে যায় ফাফ দু’প্লেসির দল।

আরও পড়ুন: আগ্রাসনের সঙ্গে সতর্কতা মেশানোই মন্ত্র রোহিতের​

আরও পড়ুন: বিধ্বংসী শামি, ২০৩ রানে প্রথম টেস্ট জিতল ভারত

এর আগে ভারতীয় ব্যাটসম্যানদের মধ্যে মিডল অর্ডার থেকে উঠে ওপেনিংয়ে নেমে সাফল্যের ইতিহাস রয়েছে বীরেন্দ্র সহবাগের। টেস্ট ওপেনার হিসেবে অভিষেক টেস্টে রোহিতও সেই পথে চলার ইঙ্গিত দিয়েছেন। উত্তরসূরিকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়ে সহবাগ টুইট করেছেন, ‘অসাধারণ টেস্ট ম্যাচ গেল রোহিতের। টেস্ট ক্রিকেটে ওপেন করতে নেমে স্বপ্নের শুরু। অনেক শুভেচ্ছা রইল রোহিতের জন্য। ময়াঙ্ক, শামি, অশ্বিন, পূজারার সুবাদে দুর্দান্ত জয় পেল ভারত।’

বিরাট কোহালির দলের দাপটে জয়ের প্রশংসা করে সোশ্যাল মিডিয়ায় মুখ খুলেছেন ক্রিকেটমহলের আরও অনেকে। সচিন তেন্ডুলকর টুইট করে অভিনন্দন জানিয়েছেন দলকে। হরভজন সিংহ আবার প্রশংসা করেছেন মহম্মদ শামিকে। দ্বিতীয় ইনিংসে যিনি পাঁচ উইকেট নিয়েছিলেন।