• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

আইসিসি ধ্বংস করছে ক্রিকেট, তির শোয়েবের

Shoaib Akhtar
সংস্কার: বাউন্সার বাড়ানোর দাবি তুললেন শোয়েব। ফাইল চিত্র

যখন ক্রিকেট খেলতেন, অনেক ব্যাটসম্যানই তাঁর দুরন্ত বাউন্সারে বেসামাল হয়েছেন। এ বার সেই শোয়েব আখতারের বাউন্সারের মুখে ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ামক সংস্থা। পাকিস্তানের প্রাক্তন ফাস্ট বোলার কোনও রকম রাখঢাক না করে বলে দিলেন, গত দশ বছরে ক্রিকেটটাকে শেষ করে দিয়েছে আইসিসি।

একটি ক্রিকেট ওয়েবসাইটে ভারতের প্রাক্তন ব্যাটসম্যান সঞ্জয় মঞ্জরেকরের সামনে নিজের হতাশা তুলে ধরেন শোয়েব। তিনি পরিষ্কার বলে দিচ্ছেন, আইসিসি এমন কিছু ‘প্লেয়িং কন্ডিশন’ তৈরি করেছে, যাতে ক্রিকেটটা শেষ হয়ে যাচ্ছে। বিশেষ করে সাদা বলের ক্রিকেট। শোয়েবের মতে, ক্রিকেট ক্রমশ ব্যাটসম্যানদের খেলা হয়ে পড়ছে। প্রাক্তন পাক ফাস্ট বোলারের তোপ, ‘‘একটা কথা পরিষ্কার বলতে পারি কি? আইসিসি ক্রিকেটটাকে শেষ করে দিচ্ছে। গত দশ বছর ধরে এই কাজটা ওরা করে আসছে। আইসিসিকে বলতে চাই, দারুণ কাজ করেছ। ঠিক যা ভেবেছিলে, সেটাই করে দেখিয়েছ।’’

শোয়েব মনে করেন, ওভার পিছু বাউন্সারের সংখ্যাটা অবশ্যই বাড়ানো উচিত। বিশেষ করে যেখানে এখন দুটো নতুন বলে খেলা হয় আর বেশির ভাগ সময় বৃত্তের বাইরে চারজনের বেশি ফিল্ডার রাখা যায় না। ‘রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস’ বলেছেন, ‘‘আমি বার বার বলে আসছি, ওভার পিছু এক বাউন্সারের নিয়মে বদল আনা উচিত। এখন তো দুটো নতুন বল আর বৃত্তের বাইরে মোটে চারজন ফিল্ডার থাকে। আইসিসিকে দয়া করে জিজ্ঞেস করো, গত দশ বছরে ক্রিকেটের মান বেড়েছে না কমেছে? সেই সচিন বনাম শোয়েব লড়াই কোথায়?’’

সচিন প্রসঙ্গে শোয়েব বলেছেন, তিনি কোনও দিন মাস্টার ব্লাস্টারের বিরুদ্ধে আগ্রাসী মেজাজ দেখাননি। কারণ সচিনকে তিনি সম্মান করতেন। কোহালির বিরুদ্ধে খেললে কী রকম হত তাঁদের দ্বৈরথ? শোয়েব বলেছেন, ‘‘আমার লক্ষ্য থাকত, বিরাটের মনঃসংযোগ নষ্ট করা। মারাত্মক গতিতে বল করে আমি চেষ্টা করতাম, বিরাটকে পুল বা কাট খেলানোর। এই দুটো শট ওর হাতে বিশেষ নেই।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন