যুবরাজ সিংহ চ্যালেঞ্জ করেছিলেন। সেই চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করলেন শিখর ধওয়ন।

দিন কয়েক আগে ‘বটল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ’ গ্রহণ করেছিলেন যুবি। ব্যাট দিয়ে বল মেরে বোতলের ক্যাপ ফেলে দিয়েছিলেন তিনি। তার পরেই সচিন তেন্ডুলকর, ব্রায়ান লারা, শিখর ধওয়নকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছিলেন পঞ্জাবতনয়।

যুবির চ্যালেঞ্জ গ্রহণ করার জন্য প্রায় এক মাস পরে ব্যাট তুলে নিলেন ভারতের বাঁ হাতি ওপেনার। পরে তাঁর ব্যাটিংয়ের ভিডিয়ো পোস্ট করেন টুইটার হ্যান্ডলে। বেশ সাবলীল ভাবেই শট খেলতে দেখা গিয়েছে শিখরকে।

আরও পড়ুন: নিউজিল্যান্ডের বর্ষসেরা নাগরিক হওয়ার দৌড়ে বেন স্টোকস!

আরও পড়ুন: ধোনিকে নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময় এসেছে, বললেন গম্ভীর

বিশ্বকাপে মাত্র দু’টি ম্যাচ খেলার পরেই ছিটকে যেতে হয়েছিল ধওয়নকে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে নেথান কুল্টার নাইলের লাফিয়ে ওঠা বল ধওয়নের বাঁ হাতের বুড়ো আঙুলে লাগে। হাতের চোট নিয়েই সেঞ্চুরি করেছিলেন শিখর। পরে অবশ্য সেই ম্যাচে আর ফিল্ডিং করতে দেখা যায়নি তাঁকে। অস্ট্রেলিয়া ম্যাচের দিন কয়েক বাদে ভারতীয় টিম ম্যানেজমেন্টের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল, বিশ্বকাপে আর নামতে পারবেন না ভারতের ওপেনার।

বিশ্বকাপে ভারতের অভিযান শেষ হয়ে গিয়েছে সেমিফাইনালে। ধওয়ন নেমে পড়েছেন নেটে। তাঁর মারা ড্রাইভ উড়িয়ে দিল বোতলের ক্যাপ। টুইটে যুবিকে উদ্দেশ্য করে ধওয়ন লেখেন, ‘‘এই আমার বটল ক্যাপ চ্যালেঞ্জ। চোটের পর আমি প্রথম বার ব্যাট তুলে নিলাম। ফিরে এসে ভাল লাগছে।’’