• সংবাদ সংস্থা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ধোনির নেতৃত্বে সৌরভ আর দ্রাবিড়ের গুণ রয়েছে, দাবি রাজপুতের

Dravid, Dhoni and Sourav
সৌরভ-দ্রাবিড়ের মতোই ধোনিও খেলোয়াড়দের পাশে থেকেছেন। —ফাইল চিত্র।

সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় আর রাহুল দ্রাবিড়ের নেতৃত্বের গুণ রয়েছে মহেন্দ্র সিংহ ধোনির ক্যাপ্টেন্সিতে।  ২০০৭ সালের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জয়ী ভারতীয় দলের ম্যানেজার লালচাঁদ রাজপুত এমনই বলেছেন লাইভ চ্যাটে।

২০০৭ সালের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপে ভারতীয় দলকে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন ধোনি। সচিন-সৌরভ-দ্রাবিড়ের মতো সিনিয়র প্লেযাররা ছিলেন না সেই ভারতীয় দলে। কিন্তু প্রথম বারের টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ জিততে সমস্যা হয়নি ধোনির ভারতের।

ধোনির নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা মুগ্ধ করেছে রাজপুতকে। ফেসবুকে লাইভ চ্যাটে তিনি বলেন, ‘‘ধোনি খুবই শান্ত প্রকৃতির। ও দু’কদম এগিয়ে ভাবে সবকিছু। নেতৃত্ব দেওয়ার সময়ে অগ্রপশ্চাত চিন্তাভাবনা করে ধোনি। ওর মধ্যে আমি সৌরভ ও রাহুলের নেতৃত্বের গুণ দেখতে পাই।’’

আরও পড়ুন: ‘পাকিস্তান শুধরোবে না’, ক্রিকেট বোর্ডের টুইটার হ্যান্ডলে দেশের নামের বানান ভুল!

সৌরভের হাতে পড়ে ভারতীয় দল বদলে গিয়েছিল। প্রতিপক্ষের চোখে চোখ রেখে কথা বলতে শিখেছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল।  রাজপুত বলছেন, ‘‘গাঙ্গুলি খুবই আগ্রাসী ক্যাপ্টেন। ইতিবাচক চিন্তা করত, খেলোয়াড়দের উৎসাহ দিত।  ভারতীয় দলের মানসিকতা বদলে দিয়েছিল সৌরভ। ধোনিও সেই জিনিসটাই বয়ে নিয়ে গিয়েছে।’’

সৌরভের মতোই ধোনিও খেলোয়াড়দের পাশে দাঁড়ান। তাঁদের উৎসাহ দেন। প্রাক্তন অধিনায়কের গুণ ধোনির মধ্যে দেখে রাজপুত বলেছেন, ‘‘কোনও খেলোয়াড়ের দক্ষতা যদি মুগ্ধ করে, তা হলে তার পাশে থাকবে ধোনি। তাকে উৎসাহ দেবে।  ধোনি কোনও প্লেয়ারের উপরে চিৎকার করে না। মাঠের ভিতরে কাউকে গালমন্দও করে না। শান্তই থাকে। প্লেয়াররাও খুশি থাকে। আর ওরাও নিজেদের সেরাটা দিতে চায়।’’ দলের সবার সর্মথন পাওয়ায় ধোনি অধিনায়ক হিসেবে এত সফল।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন