• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ওয়ানডে খেলার যোগ্যতাই নেই তাঁর, দল থেকে বাদ পড়ে ভেবেছিলেন রাহুল দ্রাবিড়

Dravid
বছরখানেকের মতো ভারতের ওয়ানডে দলে জায়গা পাননি দ্রাবিড়। ছবি ফেসবুক থেকে নেওয়া।

এক দিনের দলে খেলার যোগ্যতা আছে তো! সংশয় একসময় দানা বেঁধেছিল রাহুল দ্রাবিড়ের মনে।

১৯৯৮ সালে ভারতের পঞ্চাশ ওভারের দল থেকে বাদ পড়েছিলেন রাহুল দ্রাবিড়। প্রশ্নের মুখে পড়েছিল তাঁর স্ট্রাইক রেট। সেই সময়ই ব্যাটসম্যান হিসেবে নিজেকে নিয়ে বাড়ছিল সংশয়। ডব্লিউ ভি রামনের সঙ্গে আলাপচারিতায় দ্রাবিড় বলেছেন, “আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিজেকে নিয়ে অনিশ্চয়তায় ভোগার সময় ছিল তখন। ১৯৯৮ সালে ওয়ানডে দল থেকে বছর খানেকের জন্য বাইরে চলে গিয়েছিলাম। লড়াই করে ফিরতে হয়েছিল। বেশ কিছু অনিশ্চয়তা ছিল নিজের মধ্যেই। আমি ওয়ানডে খেলার উপযুক্ত কি না, তা নিয়ে ভাবছিলাম। কারণ, আমি বরাবরই টেস্ট ক্রিকেটার হয়ে ওঠার কোচিং পেয়েছি, জমিতে বল রেখে খেলি, তুলে মারি না। তাই নিজের মধ্যে উদ্বেগ এসেছিল যে ওয়ানডে ক্রিকেটে সফল হওয়ার স্কিল আমার আছে তো!”

আরও পড়ুন: আমি এখনও দেশের সেরাদের বিরুদ্ধে স্কিলের লড়াইয়ে নামতে তৈরি’

আরও পড়ুন: আজকের দিনে খেললে গাওস্কর ১৫-১৬ হাজার রান করত, বলছেন প্রাক্তন পাক অধিনায়ক​

১৯৯৯ বিশ্বকাপে দ্রাবিড় অবশ্য এক দিনের ক্রিকেটে নিজেকে প্রমাণ করেন দারুণ ভাবে। দলের পক্ষে সর্বাধিক ৪৬১ রান করেছিলেন তিনি। যদিও ভারত সেমিফাইনালে উঠতে পারেনি। সেই ক্যালেন্ডার বর্ষে দ্রাবিড় সবচেয়ে বেশি রান করেছিলেন। ২০০৩ বিশ্বকাপেও তিনি খেলেছিলেন। আর ২০০৭ বিশ্বকাপে তিনি ছিলেন দলের অধিনায়ক। লম্বা কেরিয়ারে ১৬৪ টেস্ট খেলার পাশাপাশি ৩৪৪ ওয়ানডে খেলেছিলেন তিনি। টেস্টে ১৩,২৮৮ রানের পাশাপাশি এক দিনের ক্রিকেটে তাঁর ব্যাট থেকে এসেছে ১০,৮৮৯ রান।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন