Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Cyclone Michaung effect

ঘূর্ণিঝড়ের দাপটে বিপর্যস্ত মানুষের পাশে বিশ্বকাপজয়ী ক্রিকেটার, সাহায্য করতে তৈরি তিনি

সদ্য ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জেতা অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটার মঙ্গলবার সমাজমাধ্যমে চেন্নাইয়ের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন। সেখানে তিনি লিখেছেন কী অবস্থায় রয়েছে চেন্নাইয়ের মানুষ।

rain

চেন্নাইয়ের রাস্তায় বন্যা। ছবি: পিটিআই।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৫ ডিসেম্বর ২০২৩ ১৭:৪১
Share: Save:

চেন্নাইয়ে বিপর্যস্ত মিগজাউম ঘূর্ণিঝড়ে। সেখানকার মানুষের পাশে দাঁড়ালেন ডেভিড ওয়ার্নার। সদ্য ভারতকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জেতা অস্ট্রেলিয়ার ব্যাটার মঙ্গলবার সমাজমাধ্যমে চেন্নাইয়ের একটি ভিডিয়ো পোস্ট করেন। সেখানে তিনি লিখেছেন কী অবস্থায় রয়েছেন চেন্নাইয়ের মানুষ।

ওয়ার্নার যে ভিডিয়ো পোস্ট করেছেন, সেখানে দেখা যাচ্ছে রাস্তা ভাসছে জলে। ভেঙে পড়ছে ল্যাম্পপোস্ট। সেই ভিডিয়ো পোস্ট করে ওয়ার্নার লেখেন, “চেন্নাইয়ের বিভিন্ন জায়গা যে ভাবে বন্যায় বিপর্যস্ত, তা নিয়ে আমি উদ্বিগ্ন। এই প্রাকৃতিক বিপর্যয়ের মুখে যাঁরা পড়েছেন, তাঁদের পাশে আছি আমি। সকলের সুস্থ থাকাটাই বড় ব্যাপার। যাঁদের সাহায্য প্রয়োজন, তাঁদের পাশে দাঁড়ান। আপনি সাহায্য করার মতো পরিস্থিতিতে থাকলে সাহায্য করুন। যে ভাবে সাহায্য করা সম্ভব করতে রাজি।”

মৌসম ভবন জানিয়েছে, সাগরে শক্তি বৃদ্ধি করেছে মিগজাউম। ঘূর্ণিঝড় থেকে পরিণত হয়েছে প্রবল ঘূর্ণিঝড়়ে। আর তার প্রভাবেই দক্ষিণ ভারতের পূর্ব উপকূল জুড়ে ভারী বর্ষণ শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন আবহবিদরা। ব্যাপক বৃষ্টিপাতের জেরে চেন্নাই শহরে আট জনের মৃত্যুও হয়েছে।

মিগজাউমের প্রভাবে ভারী বর্ষণে ইতিমধ্যেই ভেসে গিয়েছে চেন্নাই। প্রবল বৃষ্টিপাতের জেরে বহু এলাকা জলমগ্ন। ভারী বৃষ্টিপাতের কারণে রাস্তাঘাট কার্যত নদীতে পরিণত হয়েছে। বহু যানবাহন জলের তোড়ে ভেসে গিয়েছে। জায়গায় জায়গায় বড় বড় গাছ, দেওয়াল এবং বৈদ্যুতিক খুঁটি ভেঙে পড়েছে। বন্যার জল প্রবেশ করায় বেশ কয়েকটি হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরিষেবা সাময়িক ভাবে স্থগিত। জলরুদ্ধ হয়ে পড়েছে মেট্রো স্টেশনগুলি। অবিরাম বর্ষণের কারণে বেশ চেন্নাইয়ের কয়েকটি এলাকায় বিদ্যুৎ এবং ইন্টারনেট সংযোগ বিঘ্নিত হয়েছে। প্রশাসনের তরফে চেন্নাইয়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ রাখার ঘোষণা করা হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত বেসরকারি অফিসের কর্মীদেরও বাড়ি থেকে কাজ করতে বলা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE