Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
India vs England 2024

ফিফার পথে চলুক আইসিসি, ডিআরএস বিতর্কের সমাধানে পরামর্শ ভনের

ভারত-ইংল্যান্ড টেস্ট সিরিজ়ে ডিআরএসের একাধিক সিদ্ধান্ত ঘিরে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। পঞ্চম টেস্টের আগে একটি পরামর্শ দিয়েছেন ভন। ফিফার পথে আইসিসিকে চলতে বলেছেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন নেতা।

picture of Michael Vaughan

মাইকেল ভন। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৭ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ২১:১৪
Share: Save:

ক্রিকেটের ‘ডিসিশন রিভিউ সিস্টেম’ বা ডিআরএস নিয়ে বিতর্ক নতুন নয়। ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ়ের একাধিক সিদ্ধান্ত নিয়ে তৈরি হয়েছে বিতর্ক। কখনও ভারত আবার কখনও ইংল্যান্ড ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞেরা। প্রশ্ন উঠেছে ‘আম্পায়ার্স কল’ বা মাঠের আম্পায়ারের সিদ্ধান্ত নিয়েও। বিতর্ক এড়াতে নতুন উপায়ের কথা বলেছেন ইংল্যান্ডের প্রাক্তন অধিনায়ক মাইকেল ভন।

ইংল্যান্ডের দৈনিক ‘দ্য টেলিগ্রাফ’এ নিজের কলমে বিতর্ক এড়াতে একটি পরামর্শ দিয়েছেন ভন। তিনি লিখেছেন, ‘‘সমাজমাধ্যমে চোখ রাখলেই বোঝা যাবে ডিআরএসের উপর বহু মানুষের আস্থা নেই। কোনও সিদ্ধান্ত কোনও নির্দিষ্ট দলের পক্ষে যাওয়ায় ক্ষোভ বা সন্দেহ তৈরি হয়। আয়োজক দেশের সম্প্রচারকারী সংস্থা এবং সংশ্লিষ্ট কর্মীদের কাজ নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করা হয়। যদিও প্রযুক্তি সরবরাহকারী সংস্থা অনেক ক্ষেত্রেই সেই দেশের হয় না। যেমন হক আই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হচ্ছে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ়ে। প্রযুক্তিটি যুক্তরাজ্যের একটি সংস্থার। কেবল আয়োজক দেশের সম্প্রচারকারী সংস্থা প্রযুক্তিটি তাদের থেকে কিনেছে। তাও বিতর্ক হচ্ছে।’’

এই বিতর্কে এড়াতে ফিফার মতো ‘ভিএআর’ বা ভার প্রযুক্তি ব্যবহারের পরামর্শ দিয়েছেন ভন। তিনি লিখেছেন, ‘‘বিষয়টির স্বচ্ছতা এবং বিশ্বাসযোগ্যতা আরও উন্নত করতে একটি সহজ সমাধান রয়েছে আমার কাছে। ট্র্যাকে (যেখান কাজ করছেন প্রযুক্তিবিদ এবং সম্প্রচারকারী সংস্থার কর্মীরা) একটি ক্যামেরা এবং মাইক ব্যবহার করা হোক। যাতে সবাই দেখতে এবং বুঝতে পারে কত জন এবং কিভাবে সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন। এই ব্যবস্থার মধ্যে যদি ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিলের (আইসিসি) এক জন প্রতিনিধি থাকেন, তা হলে আরও ভাল হয়। আইসিসির প্রতিনিধি থাকলে নিরপেক্ষতা নিয়ে বেশি নিশ্চিত হওয়া যেতে পারে। কারণ যাঁরা প্রযুক্তি নিয়ে কাজ করেন, তাঁরা মাঠের দুই আম্পায়ারের মতোই অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।’’

ভন চান প্রযুক্তিবিদ এবং কর্মীদের নজরদারির মধ্যে রাখতে। যেমন ফুটবলের ক্ষেত্রে হয়। যেখানে ভার প্রযুক্তি নিয়ে কাজ হয়, সেখানে ক্যামেরা এবং মাইক থাকে। তাতে দর্শকেরা বুঝতে পারেন ঘটনাটি কে কী ভাবে ব্যাখ্যা করছেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE