Advertisement
১৬ এপ্রিল ২০২৪
Pakistan Cricket

‘পাক বোর্ডের সাহস নেই, ভারতের বিরুদ্ধে ফাঁকা আওয়াজ করছে’, দাবি প্রাক্তন পাক স্পিনারের

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান রামিজ় এক সাক্ষাৎকারে ভারতকে হুমকি দিয়েছিলেন যে, এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে না এলে ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে যাবে না পাকিস্তান।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান রামিজ় রাজা।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান রামিজ় রাজা। —ফাইল চিত্র

নিজস্ব প্রতিবেদন
শেষ আপডেট: ২৭ নভেম্বর ২০২২ ১৬:৪৪
Share: Save:

নিজের দেশের বোর্ডের পাশেই দাঁড়ালেন না পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার দানিশ কানেরিয়া। তিনি মনে করেন রামিজ় রাজা ভারতকে ফাঁকা আওয়াজ দিচ্ছেন। পাকিস্তানের প্রাক্তন স্পিনারের দাবি, পাক বোর্ডের কোনও সাহস নেই। ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে না যাওয়ার কথা বললেও সেটা শুধু মুখের কথা বলেই মনে করছেন কানেরিয়া।

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান রামিজ় এক সাক্ষাৎকারে ভারতকে হুমকি দিয়েছিলেন যে, এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তান না এলে, ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে যাবে না পাকিস্তান। কানেরিয়া বলেন, “পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সাহস নেই যে ওরা আইসিসির প্রতিযোগিতা খেলবে না। ভারতের কিছু যায় আসবে না যদি পাকিস্তান বিশ্বকাপ খেলতে ওদের দেশে না যায়। ওদের বিরাট বাজার। সেখান থেকে যথেষ্ট আয় করে ওরা। ভারতে বিশ্বকাপ খেলতে না গেলে পাকিস্তানের বিরাট ক্ষতি হয়ে যাবে।”

আগামী বছর এশিয়া কাপ রয়েছে। সেটা পাকিস্তানে আয়োজন করবে। এক দিনের বিশ্বকাপ হবে ভারতে। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সচিব জয় শাহ বলেছিলেন যে, পাকিস্তানে গিয়ে এশিয়া কাপ খেলবে না ভারত। অন্য দেশে হবে এশিয়া কাপ। তাতেই চটেছেন রামিজ়। তিনি বলেন, “পাকিস্তান যদি ভারতে গিয়ে পরের বছর বিশ্বকাপ না খেলে তা হলে কেউ সেটা দেখবে? আমাদের পরিষ্কার কথা, ভারত যদি এশিয়া কাপ খেলতে পাকিস্তানে আসে, তা হলেই আমরা ভারতে গিয়ে বিশ্বকাপ খেলব। যদি ওরা না আসে, তা হলে পাকিস্তানকে বাদ দিয়েই বিশ্বকাপ আয়োজন করতে পারে ওরা।”

পাকিস্তানের হয়ে টেস্টে ২৬১টি উইকেটের মালিক বলেন, “পাকিস্তান বিশ্বকাপ খেলতে ঠিক ভারতে যাবে। কর্তারা বলবেন যে, ওদের কাছে আর কোনও উপায় ছিল না কারণ আইসিসি চাপ দিচ্ছিল। পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য এটা খুব খারাপ হবে যদি বার বার আইসিসি প্রতিযোগিতায় না খেলার কথা বলেন কর্তারা।”

জয় শাহের বক্তব্যের পর এশিয়া ক্রিকেট কাউন্সিল (এসিসি) এখনও কোনও বৈঠক করেনি। কানেরিয়া বলেন, “এশিয়া কাপের এখনও অনেক দেরি আছে। আমরা জানি না যে, সেই সময় আমাদের দেশের পরিস্থিতি কী হবে। পাকিস্তানের মাটিতে আদৌ প্রতিযোগিতা আয়োজন করা যাবে কি না। সেই সময় কী হবে তা এখন বলা যাবে না। এমনও হতে পারে ভারতের সুরে সুর মিলিয়ে বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কাও এশিয়া কাপ বয়কট করে দিল। পাকিস্তানে তারাও আসতে চাইল না। পাকিস্তানের মানুষ চায় দেশের মাটিতেই এশিয়া কাপ হোক। কিন্তু দেশের যা পরিস্থিতি তাতে আমাদের সব সময় পিছিয়েই থাকতে হবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE