Advertisement
২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
India vs Australia

বিশ্বকাপের আগে লড়াই দুই মহম্মদের, সিরাজের ৬-এর জবাবে শামির ৫, চিন্তা বাড়ল রোহিতদের

বিশ্বকাপের আগে রোহিত শর্মাদের চিন্তা বাড়িয়ে দিলেন মহম্মদ শামি। আগের ম্যাচে মহম্মদ সিরাজ ৬ উইকেট নিয়েছিলেন। এই ম্যাচে শামি নিলেন ৫ উইকেট। বিশ্বকাপে দেখা যাবে কোন পেসারকে?

Shami

মহম্মদ শামি এবং মহম্মদ সিরাজ। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
শেষ আপডেট: ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩ ১৮:৩৯
Share: Save:

অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে মোহালিতে ৫ উইকেট নিলেন মহম্মদ শামি। বিশ্বকাপের আগে যা চিন্তায় ফেলে দিতে পারে ভারতীয় দলকে। যদিও রোহিত শর্মা, রাহুল দ্রাবিড়েরা চাইবেন এমন কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যেতে। বিশ্বকাপে যশপ্রীত বুমরার সঙ্গী কোন পেসার হবেন তা নিয়ে লড়াই দুই মহম্মদের।

ভারতের প্রধান নির্বাচক অজিত আগরকর। এক দিনের ক্রিকেটে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে সব থেকে বেশি উইকেট নেওয়ার তালিকায় ভারতের প্রাক্তন পেসার ছিলেন দু’নম্বরে। তাঁকে টপকে গেলেন শামি। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে এক দিনের ক্রিকেটে ৩৭টি উইকেট নিলেন তিনি। দ্বিতীয় স্থানে উঠে এসেছেন। সামনে শুধু কপিল দেব। তিনি নিয়েছিলেন ৪৫টি উইকেট। আগরকরের নেতৃত্বে বিশ্বকাপের যে দল বেছে নেওয়া হয়েছে তাতে রয়েছেন তিন পেসার যশপ্রীত বুমরা, মহম্মদ সিরাজ এবং মহম্মদ শামি।।

৫ অক্টোবর থেকে শুরু এক দিনের বিশ্বকাপ। ভারতের মাটিতে সেই প্রতিযোগিতায় তিন জন পেসার একসঙ্গে প্রথম একাদশে জায়গা পাবেন না। বুমরা খেলবেন বলেই ধরে নেওয়া হচ্ছে। সে ক্ষেত্রে শামি এবং সিরাজের মধ্যে এক জনকে খেলানো হবে। এশিয়া কাপের ফাইনালে ৬ উইকেট নিয়ে শ্রীলঙ্কাকে ৫০ রানে শেষ করে দেওয়ার পর মনে হয়েছিল সিরাজই জায়গা করে নিলেন বিশ্বকাপের প্রথম একাদশে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে সুযোগ পেতেই দাপট দেখালেন শামি। ৫ উইকেট নিলেন তিনি। এক দিনের ক্রিকেটে জীবনের সেরা বোলিংটাও করলেন।

শুক্রবার সিরাজকে বিশ্রাম দিয়ে শামিকে খেলায় ভারত। প্রথম ওভারেই উইকেট নেন শামি। চার ওভার বল করে মাঠ ছেড়ে উঠে গিয়েছিলেন। মোহালির গরম যে কিছুটা ক্লান্তি এনে দিয়েছিল সেটা স্বীকারও করেন তিনি। ম্যাচ শেষে তাঁকে জিজ্ঞেস করা হয় গরম লাগছিল কি না। ঠান্ডা ঘরে বসে প্রশ্ন করেছিলেন ধারাভাষ্যকার। উত্তরে শামি বলেন, “ঠান্ডা ঘরে বসে গরমটা বোঝা যাবে না। বাইরে এখানে খুবই গরম।” তাঁর উত্তরের মতোই মাঠে আক্রমণাত্মক ছিলেন শামি। নতুন বলে শুরু করেছিলেন। তখন উইকেট পেয়েছেন। মাঝের ওভারে বল করতে এসে উইকেট পেয়েছেন। আবার ডেথ ওভারেও উইকেট নিয়েছেন শামি।

অস্ট্রেলিয়ার ওপেনার মিচেল মার্শ স্লিপে ক্যাচ দেন। শামির বলে খোঁচা দেন তিনি। স্টিভ স্মিথকে বোলার করেন ভারতীয় পেসার। শামির বলের লাইন বুঝতে পারেননি স্মিথ। তাঁর ব্যাটে লেগে বল উইকেট ভেঙে দেয়। মার্কাস স্টোইনিসকেও বোল্ড করেন শামি। ডেথ ওভারে ম্যাথু শর্ট ক্যাচ দেন শামির বলে। তাঁর বলে বোল্ড শন অ্যাবট। ১০ ওভারে ৫১ রান দিয়ে পাঁচ উইকেট নেন শামি।

বাংলার পেসারের ৫ উইকেট চাপ তৈরি করল সিরাজের উপর। দুই পেসারের মধ্যে কে সুযোগ পাবেন তা নিয়ে লড়াই হলেও তাঁদের দু’জনের মধ্যে কোনও লড়াই নেই। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচে ৫ উইকেট নেওয়ার পর শামি বলেন, “সিরাজের সঙ্গে বল করতে বেশ ভাল লাগে আমার। বেশ কয়েক বছর ধরে আমরা একসঙ্গে বল করছি। একে অপরের সঙ্গ আমরা উপভোগ করি। দলের প্রয়োজনে উইকেট নিতে পেরে ভাল লাগছে। এই পিচে খুব বেশি কিছু ছিল না। সঠিক লেংথে বল করা এবং বৈচিত্র্য প্রয়োজন হয়। সেটা করতে পেরেছি। পরিশ্রমের ফল পেয়েছি।”

বিশ্বকাপে এ বার ভারতীয় দলের দুই পেসারের মধ্যে দলে ঢোকার লড়াই হতে চলেছে। এই লড়াই দলের জন্য ভাল বলেই মনে করা হচ্ছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE