Advertisement
০৪ মার্চ ২০২৪
Allan Border

Allan Border: ওয়ার্নার, স্মিথরা ঠিক করেছে! হঠাৎই বল বিকৃতির পক্ষে সওয়াল প্রাক্তন অধিনায়কের

বর্ডারের বক্তব্য, পাটা উইকেটে ভাল ব্যাটারদের আউট করাই কঠিন। রিভার্স সুইং-ই সেরা অস্ত্র। সে জন্য স্বাভাবিক পদ্ধতিতে বল বিকৃতি করা অপরাধ নয়।

স্মিথ, ওয়ার্নারদের পাশে বর্ডার।

স্মিথ, ওয়ার্নারদের পাশে বর্ডার। ফাইল ছবি।

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৫ জুলাই ২০২২ ১৬:২৯
Share: Save:

ক্রিকেটে বল বিকৃতির পক্ষে সওয়াল অ্যালান বর্ডারের। তাঁর মতে, স্বাভাবিক পদ্ধতিতে বল বিকৃত করায় কোনও অন্যায় নেই। বোলারদের সাহায্য করার জন্য বল বিকৃত করা যেতেই পারে।

বল বিকৃত করার অভিযোগে ডেভিড ওয়ার্নার এবং স্টিভ স্মিথের শাস্তি প্রসঙ্গে কথা বলছিলেন বর্ডার। নিজে ব্যাটার হয়েও বোলারদের স্বার্থে বল বিকৃত করার পক্ষে সওয়াল করেন তিনি। বল বিকৃত করা বিরাট কোনও অপরাধ বলে মনেই করেন না বর্ডার। তাঁর বক্তব্য, ‘‘পাটা উইকেটে বোলারদের সাহায্য করার জন্য স্বাভাবিক পদ্ধতিতে বলের বিকৃতি ঘটাতে হয়।’’ এই প্রসঙ্গে রিভার্স সুইয়ের কথা বলেছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রাক্তন অধিনায়ক। বর্ডার বলেছেন, ‘‘রিভার্স সুইং একটা বড় অস্ত্র। পাটা উইকেটে রিভার্স সুইংয়ে এখনও অনেক ব্যাটার আউট হয়। বিষয়টা নিয়ে ভাবার আছে। বল হাতে নিয়ে স্বাভাবিক আঁচড় কাটলেও একটা সময় পর রিভার্স সুইং করতে শুরু করে। এর মধ্যে ভুল কী আছে?’’

আরও এক ধাপ এগিয়ে বর্ডার বলেছেন, ‘‘এটা কিন্তু খারাপ ভাবনা নয়। আরে একদম পাটা উইকেটেও তো বোলারদের কিছু সাহায্য দরকার। না হলে রান ধরাছোঁয়ার বাইরে চলে যেতেই থাকবে। এখন সেটাই হচ্ছে। নয়তো আমাদের এমন উইকেট তৈরি করা দরকার, যেখানে ফলাফল হবে। সম্পূর্ণ পাটা উইকেটে ভাল ব্যাটারদের আউট করা প্রায় অসম্ভব হয়ে যায়।’’

বল বিকৃতির শাস্তি হিসাবে ওয়ার্নার কখনও অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দিতে পারবেন না। বর্ডারের দাবি, ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার উচিত ওয়ার্নারের শাস্তি প্রত্যাহার করে নেওয়া। বর্ডার বলেছেন, ‘‘ওয়ার্নারকে অত্যন্ত কঠিন শাস্তি দেওয়া হয়েছে। অনেক দিন ধরে শাস্তি বয়ে বেড়াচ্ছে। আমরা বল বিকৃত করতে গিয়ে ধরা পড়েছি। আমি জানি, বিশ্বের সব দলই বল বিকৃত করে। এক জন অধিনায়কও কি আছে, যে বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবে, কখনও এমন কোনও কাজ করেনি। যদি কেউ বলে, তা হলে বলব সে ডাহা মিথ্যে বলছে।’’ তাঁর মতে, ওয়ার্নার যথেষ্ট শাস্তি ভোগ করেছেন। এ বার অন্য রকম ভাবা উচিত। বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন অজি অধিনায়ক বলেছেন, ‘‘যাদের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে, তারা নিশ্চিত ভাবেই ওই অপরাধের মাথা ছিল। কিন্তু ক্রিকেটে সর্বত্রই এমন ঘটনা ঘটে।’’

এই মুহূর্তে অস্ট্রেলিয়ার অন্যতম সেরা ব্যাটার ওয়ার্নার। বাঁহাতি আগ্রাসী ওপেনার বহু ম্যাচ জিতিয়েছেন দেশকে। তবু ২০১৮ সালের স্যান্ডপেপার কাণ্ডের জন্য এখনও শাস্তি ভোগ করছেন তিনি। নির্বাসন শেষে ২২ গজে ফিরলেও অস্ট্রেলিয়াকে নেতৃত্ব দেওয়ার সুযোগ পান না ওয়ার্নার। বিভিন্ন ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগে দক্ষতার সঙ্গে অধিনায়কত্ব করলেও নিজের দেশেই সেই সুযোগ থেকে বঞ্চিত বাঁহাতি ব্যাটার।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE