Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
India vs England 2024

শুভমনের শতরানে অশান্তির আঁচ! ধর্মশালা টেস্টের মাঝে কী হল রোহিতদের শিবিরে?

ধর্মশালায় শুভমনের শতরান অশান্তির আবহ তৈরি করতে পারে ভারতীয় শিবিরে। ফর্মে থাকা সত্ত্বেও কেন তিনি ওপেন করছেন না, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন শুভমনের বাবা লখবিন্দর।

picture of Rohit Sharma

রোহিত শর্মা। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন ডেস্ক
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৮ মার্চ ২০২৪ ১৮:৫৮
Share: Save:

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পঞ্চম টেস্টে শুভমন গিল শতরান করতেই অশান্তির আঁচ ভারতীয় শিবিরে। ভাল ফর্মে থাকা সত্ত্বেও শুভমন কেন ইনিংস শুরু করবেন না? প্রশ্ন তুলে দিলেন তাঁর বাবা লখবিন্দর সিংহ। ছেলের ব্যাটিং অর্ডারে তিন নামা নিয়ে খুশি তিনি।

ব্যর্থতার সময় নানা ক্ষোভ-বিক্ষোভ প্রকাশ্যে বেরিয়ে আসে। কিন্তু ধর্মশালা টেস্টে ভারতীয় দলের দাপটের দিনেই অশান্তির ইঙ্গিত। অধিনায়ক রোহিত শর্মা, কোচ রাহুল দ্রাবিড়দের সিদ্ধান্তে খুশি নন শুভমনের বাবা। তিনিই তরুণ ক্রিকেটারের প্রথম কোচ। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে শুভমন শতরান করার পর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন তিনি।

ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের পর বেশ চাপে ছিলেন শুভমন। টানা ১২টি ইনিংসে ৫০ রান করতে পারেননি তিনি। বিশাখাপত্তমে ১০৪ রানের ইনিংস খেলে ফর্মে ফেরেন। রাজকোটে ৯১ এবং রাঁচীতে অপরাজিত ৫২ রানের ইনিংস এসেছিল তাঁর ব্যাট থেকে। ধর্মশালাতে করলেন ১১০ রান। ছেলে ফর্মে ফিরতেই মুখ খুলেছেন লখবিন্দর। তাঁর বক্তব্য, ফর্মে থাকা সত্ত্বেও ওপেনার হিসাবে খেলতে পারছেন না শুভমন। ম্যাচের পর ম্যাচ তাঁর ছেলেকে ত্যাগ স্বীকার করতে হচ্ছে।

লখবিন্দর বলেছেন, ‘‘ক্রিজ় থেকে বেরিয়ে খেলার চেষ্টা করছিল শুভমন। হায়দরাবাদ টেস্টের পর আর সেটা করছে না। তাতেই রানে ফিরেছে। অনূর্ধ্ব ১৬ পর্যায় থেকেই জোরে বল এবং স্পিন সমান দক্ষতায় খেলতে পারে শুভমন। নিজের স্বাভাবিক খেলা না খেললে বা খেলতে পারলে সমস্যায় পড়তে হয়। ক্রিকেট খেলাটা হল আত্মবিশ্বাসের। একটা ভাল ইনিংসই ব্যাটারদের সেরা ফর্মে ফিরিয়ে দেয়। অনূর্ধ্ব ১৬ পর্যায় থেকে ওপেন করেই প্রচুর রান করেছে শুভমন।’’

এর পর শুভমনের বাবা সরাসরি বলেছেন, ‘‘আমার মনে হয় ওর ইনিংস শুরু করাই উচিত। আমার মতে যা হচ্ছে, এক দমই ঠিক হচ্ছে না। সাজঘরে বেশি ক্ষণ বসে থাকলে চাপ তৈরি হয়। তিন নম্বর জায়গাটা মিডল অর্ডার নয়। আবার ওপেন করারও সুযোগ পাচ্ছে না। এতে শুভমন নিজের খেলাটা খেলতে পারছে না। তিন নম্বরে একটু রক্ষণাত্মক খেলতে হয়। যেমন চেতেশ্বর পুজারা খেলত। শুরুতে নামলে কিছু আলগা বল পাওয়া যায়। ৫-৭ ওভার পর নামলে বলের পালিশ হয়তো ভাল থাকে, কিন্তু তত ক্ষণে বোলার লাইন-লেংথে থিতু হয়ে যায়।’’

শুভমনের তিন নম্বরে ব্যাট করা যে তাঁর এক দমই পছন্দ নয়, তা সরাসরি বুঝিয়ে দিয়েছেন লখবিন্দর। যদিও তিনি বলেছেন, ‘‘আমি শুভমনের সিদ্ধান্তে হস্তক্ষেপ করতে চাই না। এখনও ওকে অনুশীলন করাই। সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য এখন শুভমন যথেষ্ট পরিণত। যখন বয়স কম ছিল, তখন আমি সিদ্ধান্ত নিতাম ওর হয়ে।’’

লখবিন্দর চান ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) নির্দেশিকা মেনে সুযোগ পেলে রঞ্জি ট্রফি খেলুন শুভমন। বোর্ডের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে শুভমনের বাবা বলেছেন, ‘‘এখন খুব ব্যস্ত সূচি থাকে। লাল বলের ক্রিকেটের জন্য অনুশীলনের সুযোগ প্রায় পাওয়াই যায় না। কারণ বেশির ভাগ সময় সাদা বলে ক্রিকেট হয়। তাই লাল বলের ক্রিকেটে স্পিনারদের বল খেলা একটি কঠিন হয় এখন। এই সমস্যা সমাধানে বিসিসিআই পদক্ষেপ করেছে দেখে ভাল লাগছে।’’

লখবিন্দর চান, শুভমন ভারতীয় দলের হয়ে ওপেন করুন। এই মুহূর্তে টেস্টে ভারতের হয়ে ওপেন করছেন রোহিত শর্মা এবং যশস্বী জয়সওয়াল। তাঁরা দু’জনেও ফর্মে রয়েছেন। ধারাবাহিক ভাবে রান করছেন। স্বভাবতই ওপেনিং জুটি ভাঙতে চাইছেন না দ্রাবিড়। শুভমনের বাবার দাবি সে ক্ষেত্রে সাফল্যের মাঝে ভারতীয় শিবিরে অশান্তির আবহ তৈরি করতে পারে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE